advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পুলিশি নিরাপত্তায় ফাহিমের দাফন সম্পন্ন

কৌশলী ইমা,নিউইয়র্ক
২০ জুলাই ২০২০ ১১:৪১ | আপডেট: ২০ জুলাই ২০২০ ১২:০৮
ফাহিম সালেহ
advertisement

পুলিশি নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাও’র সহপ্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহর জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

গতকাল রোববার নিউইয়র্ক সময় দুপুরে শহর থেকে দূরে পোকেপসি অঞ্চলের রুরাল কবরস্থানে তার জানাজা হয়। জানাজা পড়ান ওয়াপিংগার ফলসের আল নূর মসজিদের ইমাম ওসমানী। পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়-স্বজনরা এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনসহ প্রায় শত খানেক লোকের উপস্থিতিতে ফাহিমের জানাজা হয়। এ ছাড়া তার দাফনের সময় সেখানে উপস্থিত ছিল নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের (এনওয়াইপিডি) সদস্যরা।

গত সোমবার খুন হন ফাহিম। মঙ্গলবার তার লাশ উদ্ধার করে এনওয়াইপিডি। হত্যার ঘটনায় ফাহিমের সহকারী টেরেস হাসপিলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ম্যানহাটনের অ্যাসিসট্যান্ট ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি লিন্ডা ফোর্ড জানিয়েছেন, ১৩ জুলাই দুপুর প্রায় পৌনে দুটার দিকে লিফট-এ করে ফাহিমের পিছু নেয় মাস্ক পরিহিত হাসপিল। লিফটটি ফাহিমের ফ্ল্যাটে পৌঁছানোর পরপরই তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয় এবং তার ঘাড়ে ছুরিকাঘাত করা হয়। এরপর মরদেহ অ্যাপার্টমেন্টের ভেতরে রেখে সেখান থেকে চলে যায় হাসপিল। পরদিন হোম ডিপো থেকে করাত ও অন্যান্য জিনিসপত্র কিনে আবারও ওই অ্যাপার্টমেন্টে যান তিনি।

সূত্রকে উদ্ধৃত করে নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, ফাহিমের মরদেহ টুকরো করা শেষে সেগুলো ব্যাগে ভরে ফেলার পরিকল্পনা ছিল হাসপিলের। তবে তার আগেই ফাহিমের খালাতো বোন এসে কলিংবেল চাপতে থাকলে ভয়ে সিঁড়ি দিয়ে পালিয়ে যান হাসপিল।

advertisement