advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঈদে কী পারবে ঘুরে দাঁড়াতে

তারেক আনন্দ
৩০ জুলাই ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩০ জুলাই ২০২০ ০২:১৪
advertisement

গত কয়েক মাস করোনার কারণে বিনোদন অঙ্গনে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। এর ধাক্কা লাগে অডিও ইন্ডাস্ট্রিতেও। চাঙ্গা অডিও ইন্ডাস্ট্রি করোনার ধাক্কা সামলে উঠতে হিমশিম খাচ্ছে। গান প্রকাশে নেমে আসে স্থবিরতা। এবারের ঈদে কী পারবে ঘুরে দাঁড়াতে? গত ঈদে খুব বেশি গান প্রকাশ হয়নি। এদিকে ঈদুল আজহা উপলক্ষে একাধিক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এবার তারা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন। প্রকাশ করছেন শত শত গান।

গত ঈদে মিউজিক ভিডিওর সংখ্যা কমলেও এবার এ সংখ্যা কিছুটা হলেও বাড়ছে। করোনার আগে মিউজিক ভিডিওর শুটিং করা গান প্রকাশের পাশাপাশি নতুন করে কিছু সংখ্যক গান প্রকাশ হচ্ছে স্টুডিও ভার্সন আকারে। এমনিতেই করোনাকাল, তার ওপর মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা এখন ইউটিউব। ইউটিউবে গান প্রকাশ করে আগের মতো আর স্বস্তি পাচ্ছে না প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো। মুনাফাও যেমন আসছে না, তেমনি ইউটিউবে ভিউও হচ্ছে না আগের মতো।

গান প্রকাশে জোর দিচ্ছেন অ্যাপসে। অ্যাপসকে জনপ্রিয় করা, শ্রোতারা যাতে অ্যাপসে গান শুনতে অভ্যস্ত হন তার দিকেই নজর দিচ্ছেন গান প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো। নতুন গান এখন মিউজিক ভিডিও আকারে নয়, প্রথমেই প্রকাশ হচ্ছে অ্যাপসে। অ্যাপসে ব্যাপক সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছেন তারা। এবারের ঈদে প্রকাশিত নতুন গানগুলো প্রথমে শোনা যাবে অ্যাপসেই। এর পর ধারাবাহিকভাবে নতুন গানগুলো প্রকাশ হবে ইউটিউবে।

জি-সিরিজ থেকে প্রকাশ হচ্ছে- বাপ্পা মজুমদারের ‘জানতে চেও না’, আরমান আলিফের ‘বলো তুমি কি সুখী’, ফজলুর রহমান বাবুর ‘পক্সক্ষী’, এফ এ সুমনের ‘বহুরূপী’ ও ‘ভিতর পোড়ায়’, কিশোর পলাশের নতুন গান ‘কেউ বলে পাগলা’, কাজী শুভর ‘এক জনমের ভুল’, তৌসিফের ‘চোখেতে মেঘ’, ঐশীর ‘মেঘের বাড়ি’, স্বরলিপির ‘মনের দেয়াল’, পুতুলের ‘ঝুম বৃষ্টি’ ও ‘কফির চুমুকে’, সাজুর ‘অভিমান’, বিউটির ‘যদি ভালো লাগে’ ও ‘পন্থ পানে চাহিয়া থাকি’, পারভেজ সাজ্জাদের ‘দুঃখদল’, কামরুজ্জামান রাব্বির ‘প্রেমে পোড়া’, শাওন গানওয়ালার ‘বৃষ্টি নিমন্ত্রণ’ প্রমুখ।

সংগীত প্রকাশ করছে- মাহতিম সাকিবের ‘জানি আমি জানি’, আরাফাত সাদের ‘বেঈমান পাখি’, লাইজুর ‘দূরে গেলে’, প্রিয়া, রোজের ‘জিন্দা লাশ’, রাসেল রহমানের ‘তোমায় নিয়ে’ প্রমুখ।

লেজার ভিশন প্রকাশ করছে বেলাল খানের কণ্ঠে ‘তোরে ভালোবাইসা বন্ধু’, কাজী শুভর ‘জিন্দা লাশ’, ইমরানের ‘আমার পাশে থেকো’, পারভেজ সাজ্জাদের ‘নূরে মাওলা’, তরিক মৃধার ‘দোজখ দোজখ লাগে’, রিংকুর ‘যাইয়ো দেখিয়া’, সালমার ‘প্রেমের জানাজা’ প্রমুখ।

সিএমভি প্রকাশ করছে মিনার রহমানের ‘তোমার ভালো হোক’, ইমরানের কণ্ঠে ‘ঝড় এলে’, তানজীব সারোয়ারের ‘ভুল থেকে শিখেছি’, ন্যানসির ‘এমন একটা মন’, ঐশীর ‘খুঁজে ফিরি তাই’, বেলাল খানের ‘অচেনা’, মাহতিম সাকিবের ‘তুমি আর আগের মতো নেই’ প্রমুখ।

সিডি চয়েস প্রকাশ করছে আসিফ আকবরের কণ্ঠে ‘মিথ্যেবাদী’। তানজীব সারোয়ারের ‘মন পোষ মানে না ও অংকনের সঙ্গে তানজীবের দ্বৈত গান ‘দুঃখ যত দাও’। তাহসানের ‘একদিন’, প্রত্যয় খানের ‘তুমি জানো না’। বালামের ‘তুমি রূপকথায়’। পথিক নবীর ‘ফাঁকি’। ফজলুর রহমান বাবুর ‘প্রেমে মরা’। শেখ সাদীর ‘না এভাবে না’। বাপ্পা মজুমদারের ‘মনটা ছুঁলেই বুঝবে’। কাজী শুভর ‘জ্বালা শুধু বুকে’, ‘কোকিলা’। মিলন ও বৃষ্টির দ্বৈত গান ‘গ্রহণ করো’ প্রমুখ।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন থেকে প্রকাশ হচ্ছে আসিফ আকবর এবং মৌটুসীর দ্বৈত গান ‘তুমি এলে’, ইমন খানের ‘বেঈমান’, লুৎফর হাসানের ‘কার বালিশে ঘুমাও’, ইমরান-সুমনার ‘রাখিস আমার হাতটা ধরে’, পূজা ও রাজ বর্মনের ‘তোকে চাই’, মিলন ও বৃষ্টির দ্বৈত গান ‘প্রেম রোগ’, অংকনের ‘তৃষ্ণা’ প্রমুখ।

advertisement