advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিএসএফের ছোড়া পাথরের আঘাতে বাংলাদেশির মৃত্যু

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
৩ আগস্ট ২০২০ ১২:৩০ | আপডেট: ৩ আগস্ট ২০২০ ১৪:১৭
ঠাকুরগাঁওয়ের লোগো
advertisement

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার রত্নাই সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ছোড়া পাথরের আঘাতে আল-মামুন (২১) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। রত্নাই সীমান্তের নাগর নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার সকালে মরাধর গ্রামের পশ্চিম পাশে ৩৮২(৩) এস পিলার এলাকায় নাগর নদীতে লাশটি ভেসে উঠলে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

আল মামুন আমজানখোর ইউনিয়নের ঠকবস্তি পশ্চিম হরিনমারি এলাকার সাদেক আলীর ছেলে ও স্থানীয় ইউপি সদস্য শামসুল আলমের নাতি।

আমজানখোর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আকালু জানান, রোববার রাতে রত্নাই সীমান্তের ৩৮২(৪) এস পিলারের দক্ষিণ শেষ প্রান্তে ভারতীয় আয়রন ব্রিজের নিচ দিয়ে গরু আনছিলেন মামুনসহ কয়েকজন। এ সময় বিএসএফ সদস্যরা তাদের ওপর পাথর ছুড়ে মারে। বিএসএফের ছোড়া পাথরের আঘাতে আল-মামুন মারা যান। এতে আরও দুজন আহত হন। তবে আহতরা পালিয়ে আসেন।

ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল শহিদুল ইসলাম জানান, রত্নাই সীমান্তের মরাধর গ্রামের পশ্চিম পাশে নাগর নদীতে একজনের মরদেহ ভেসে উঠেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। বিজিবি জোয়ানদের ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

advertisement
Evaly
advertisement