advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঈদের ছুটিতে ফাঁকা সড়কে ৪২ প্রাণহানি

আমাদের সময় ডেস্ক
৫ আগস্ট ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৫ আগস্ট ২০২০ ০০:২২
advertisement

ঈদুল আজহার ছুটিতে ফাঁকা সড়কেই ঝরল ৪২ প্রাণ। গত শুক্রবার থেকে গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত ৫ দিনে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে সিলেটের ওসমানীনগর, নীলফামারী ও হবিগঞ্জে ৫ জন করে; ঢাকার ধামরাই, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ ও গাজীপুরের কাপাসিয়ায় ৩ জন করে; মেহেরপুরের গাংনী, রাজবাড়ী, বাগেরহাট ও পাবনায় ২ জন করে এবং পটুয়াখালীর বাউফল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, মাগুরা, বগুড়ার কাহালু, কুমিল্লার দাউদকান্দি, মাদারীপুরের শিবচর ও জয়পুরহাটের কালাই উপজেলায় ১ জন করে নিহত হন। নিহতদের বেশিরভাগই ঈদের ছুটিতে বাড়ি যাচ্ছিলেন। নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

ওসমানীনগর (সিলেট) : সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের ওসমানীনগর উপজেলায় ঈদের আগের দিন যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেট কারের মধ্যে সংঘর্ষে একই পরিবারের ৫ জন নিহত হন। সকাল ৭টার দিকে উপজেলার তাজপুর এলাকার বড়ায়া চানপুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার শ্যামারচর গ্রামের স্বপন কুমার দাস ও তার স্ত্রী লাভলী রানী দাস এবং তাদের তিন সন্তান। তাদের আরেক সন্তানকে গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট ওসমানী হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়।

নীলফামারী : ঈদের দিন বিকালে সৈয়দপুর শহরের কাছে চৌমুহনী বাজারে দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে নিহত হন স্থানীয় সাংবাদিক এম ওমর ফারুকের ছোট ভাই মিজানুর রহমান। ঈদের পরদিন রাত ৯টার দিকে কিশোরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সামনে নৈশ কোচ চাপায় নিহত হন মোটরসাইকেল আরোহী একই পরিবারের তিনজন। তারা হলেন রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার দক্ষিণ কোলকোন্দ গ্রামের লিটন হোসেনের স্ত্রী রুমা আক্তার, চার বছরের শিশুপুত্র আবদুর রাহিম ও শ্যালিকা আদুরী আক্তার। এ ছাড়া সোমবার রাতে সদর উপজেলার লক্ষ্মীচাপ ইউনিয়নের দুবাছি সরকারপাড়ায় হিউম্যান হলারের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে নিহত হন মোটরসাইকেল আরোহী জাহাঙ্গীর হোসেন। তিনি একই উপজেলার আকাশকুড়ি গ্রামের বাসিন্দা।

গাইবান্ধা : ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নুনদহ ব্রিজ এলাকায় ঈদের আগের দিন কাভার্ডভ্যান-প্রাইভেটকার সংঘর্ষে ৩ জন নিহত ও ৬ জন আহত হয়েছে। নিহতরা হলেন রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার বানেশ্বর গ্রামের আশিকুর রহমান, গঙ্গাচড়া উপজেলার কিশমতপুর গ্রামের মল্লিক আলীর ছেলে সাহেব মিয়া ও একই উপজেলার ইসমতপুর গ্রামের তোফায়েল আহম্মেদের ছেলে কাজল মিয়া। নিহতরা সবাই কাভার্ডভ্যানের যাত্রী। তারা সবাই ঈদের ছুটিতে ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন।

ধামরাই (ঢাকা) : ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাই উপজেলার বাথুলী এলাকায় যাত্রীবাহী বাস ও পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে পল্লী বিদ্যুতের রিডারম্যান আনোয়ার হোসেনসহ পিকআপ ভ্যানের ৩ আরোহী নিহত ও ১০ জন আহত হন। গত রবিবার সকাল ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত অপর ২ জনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

মেহেরপুর : গাংনীতে ট্রাক-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে দুজন নিহত

হন। গত রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার বামুন্দী পশুহাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেনÑ বজ্রপুর গ্রামের মকবুল হোসেন ও তার বন্ধু চরগোয়াল গ্রামের আক্তারুজ্জামান।

বাউফল (পটুয়াখালী) : বাউফল-বগা মহাসড়কের আফছেরের গ্রেজ এলাকায় সোমবার সকালে চলন্ত মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত হন পথচারী ভবতি রানী। তিনি উপজেলার বগা ইউনিয়নের গোসিঙ্গা গ্রামের ভুবন বৈরাগীর স্ত্রী।

গাজীপুর : কাপাসিয়া উপজেলা আমরাইদ এলাকায় সোমবার সকালে ট্রাকের সঙ্গে সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে রুমন নামে এক যুবক মারা যান। রুমন কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার চাঁদপুর গ্রামের রমজান আলীর ছেলে।

ঈদের ছুটি শেষে গতকাল মোটরসাইকে কর্মস্থলে ফিরছিলেন বিমান বাহিনীর কর্মচারী মোহাম্মদ ইয়াসিন। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কাপাসিয়া-মনোহরদী সড়কের মহিউস সুন্নাহ্ মসজিদ ও মাদ্রাসার সামনে উত্তর খামের নামক স্থানে অজ্ঞাতনামা কোনো একটি পরিবহন তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে তিনি মোটরবাইকসহ রাস্তার পাশে ঝিলে পড়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে হেলমেট পরিহিত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে। এ ছাড়া ঈদের দিন দুপুরে চাঁদপুর সড়কের সৈয়লবাড়ি মোড়ে দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে রাওনাট এলাকার মোমতাজ উদ্দিন পলানের পুত্র যুবদল নেতা মাসুদ পলান নিহত হন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জ-রাজশাহী মহাসড়কের স্বরূপনগর এলাকায় বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে মোটরসাইকেলচালক মো. গোলাম সারওয়ার কাউনাইন নামে এক শিক্ষক নিহত হন। সোমবার সকালে দুর্ঘটনাটি ঘটে। গোলাম সারওয়ার কাউনাইন চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার স্বরূপনগর মহল্লার বাসিন্দা। তিনি নবাবগঞ্জ শহর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন।

রাজবাড়ী : রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের সোনাপুর মোড় এলাকায় গতকাল সকালে মিনি ট্রাক-মোটরসাইকল সংঘর্ষে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হন। তারা হলেনÑ কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার মথুরাপুর গ্রামের আবদুল্লাহ আবু সাঈদ ও একই উপজেলার শিমুল।

বাগেরহাট : খুলনা-মোংলা মহাসড়কের ফকিরহাট উপজেলার খাজুরা এলাকায় ঈদের দিন দুপুরে যাত্রীবাহী বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন। নিহতরা হলেনÑ কচুয়া উপজেলার ধোপাখালী গ্রামের রুহুল আমিন ও চিতলমারী উপজেলার চৌদ্দহাজারী গ্রামের মুজিবর।

মাগুরা : সদর উপজেলার বাটাজোড় এলাকায় গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাসের ধাক্কায় জনপল সরকার নামের এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন। তিনি উপজেলার বাটাজোড় গ্রামের একজন ফল ব্যবসায়ী।

কাহালু (বগুড়া) : গত সোমবার বিকালে ঈদের দাওয়াত খেয়ে বাড়ি ফেরার পথে কাহালু উপজেলার পাবহারায় অটোভ্যানের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন খুকিমন নামের এক বৃদ্ধা। সন্ধ্যার দিকে মারা যান তিনি। খুকিমন উপজেলার কানড়া গ্রামের মকবুল হোসেনের স্ত্রী।

হবিগঞ্জ : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের বাহুবল উপজেলার আব্দানারায়ণ এলাকায় বাস ও প্রাইভেট কারের সংঘর্ষে দুই নারী গার্মেন্টসকর্মীসহ তিনজন নিহত হন। ঈদের আগের দিন ভোর ৬টায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেনÑ শাহিদা ও মালেকা। দুজনই সুনামগঞ্জ জেলার বিশ^ম্ভরপুর উপজেলার দশঘর গ্রামের বাসিন্দা। তবে নিহত প্রাইভেটকার চালকের পরিচয় পাওয়া যায়নি। এদিকে গতকাল বেলা ১১টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে শায়েস্তাগঞ্জে দ্রুতগামী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অপর একটি বাসকে ধাক্কা দিলে ২ জন নিহত ও ১০ জন আহত হন। শায়েস্তাগঞ্জ গোলচত্বর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন আউয়াল মিয়া ও চানমিয়া। আউয়াল শায়েস্তাগঞ্জের নিজগাও গ্রামের বাসিন্দা। তবে চানমিয়ার ঠিকানা জানাতে পারেননি হাইওয়ে ওসি।

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দি উপজেলার আমিরাবাদ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গতকাল সকাল পৌনে ৯টার দিকে বেপরোয়া যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে আইল্যান্ডে ধাক্কা খেয়ে উল্টে যায়। এতে সুমন ভূঁইয়া নামের এক পথচারী বাসের নিচে চাপা পড়ে মারা যান। সুমন ভূঁইয়া উপজেলার জিংলাতলী ইউনিয়নের ইটাখোলা গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে। এ ঘটনায় আরও ৫ জন আহত হয়েছে।

পাবনা : পাবনায় ঈদের ছুটির মধ্যে পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিশুসহ ২ জন নিহত এবং অপর ২ জন আহত হয়েছে। নিহতরা হলো সাঁথিয়া উপজেলার নাড়িয়া-গদাই গ্রামের সালেহা খাতুন এবং ভাংগুড়া পৌর সভার উত্তর সারুটিয়া মহল্লার সাগর আলীর দেড় বছর বয়সের ছেলে সৌরভ। সোমবার ফরিদপুর উপজেলার ডেমরা নামক স্থানে করিমন-নছিমন সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই নিহত হন সালেহ খাতুন। একই দিন নানির সঙ্গে ঘুরতে বের হওয়া শিশু সৌরভকে একটি ইজিবাইক ধাক্কা দেয়। হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে।

শিবচর (মাদারীপুর) : শিবচরে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সাদভি নামের এক কলেজছাত্র নিহত হন। গতকাল দুপুরে এক্সপ্রেসওয়ের পাঁচ্চর গোলচত্বর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। সাদভী নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইটনা গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে। তিনি ঢাকা কলেজ থেকে এ বছরের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

কালাই (জয়পুরহাট) : কালাই উপজেলায় শ্যালো চালিত ভটভটি খাদে পড়ে একজন গৃহবধূ নিহত ও আরও তিনজন আহত হন। জয়পুরহাট-মোকামতলা মহাসড়কের পুনট বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গতকাল বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম মাবিয়া। তিনি উপজেলার পাঁচগ্রামের মৃত সিদ্দিকের স্ত্রী।

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) : ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর গ্রামে গতকাল বিকাল ৫টায় বিয়ের বরযাত্রীবাহী বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মোহসেনা বেগম নামের এক প্রতিবন্ধী নারী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। তিনি উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের শিবনগর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মৃত আবু বক্কর সিদ্দিকের বোন।

advertisement
Evaly
advertisement