advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

গাজীপুরে রিসোর্টে হামলা, আগুন

গাজীপুর প্রতিনিধ
৫ আগস্ট ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৫ আগস্ট ২০২০ ০০:৩৭
advertisement

গাজীপুরের কালীগঞ্জে একটি রিসোর্টে হামলা, ব্যাপক ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় আসবাবপত্র, বিপুলসংখ্যক গাছের চারা ও কৃষি প্রজেক্টের ক্ষতি করা হয়। ঈদের পরদিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলেও এখনো মামলা দায়ের করা হয়নি।

কালীগঞ্জ উপজেলার নারগানা ইন্টারন্যাশনাল রিসোর্টের মালিক ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আজম খান অভিযোগ করেন, ৪০-৫০ জন দুর্বৃত্ত অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে রিসোর্টে হামলা চালায়। আমি পালিয়ে প্রাণে বাঁচতে পারলেও দুর্বৃত্তরা রিসোর্টে আগুন লাগিয়ে আসবাবপত্র ও কয়েকটি এসি, টেলিভিশন, ফ্রিজ, দরজা ভেঙে নগদ টাকাসহ জিনিসপত্র লুট করে। হামলাকারীরা নার্সারির কয়েকশ চারা গাছ ভেঙে ও কেটে ফেলে। সব মিলিয়ে রিসোর্টের কমপক্ষে কোটি টাকার ক্ষতি করা হয়েছে। তার দাবি, রাজনৈতিক শত্রুতার জেরে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। তিনি হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

রিসোর্টের ম্যানেজার সোহেল খন্দকার বলেন, ঈদের পর দিন হওয়ায় রিসোর্টের মালিক আজম খান সেখানেই অবস্থান করছিলেন। রাত সাড়ে ৮টার দিকে মোটরসাইকেলে হেলমেট পরা শতাধিক দুবর্ৃৃত্ত রিসোর্টে হামলা চালায়। তাদের হাতে ছিল আগ্নেয়াস্ত্র, হকিস্টিক, লোহার রড ও বড় হাতুড়ি। হামলাকারীরা রিসোর্টে ঢুকে আজম খানকে খুঁজতে থাকে। তাকে না পেয়ে রিসোর্টের বাঁশের তৈরি ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে তারা মালিকের রুমের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে ব্যাপক

ভাঙচুর চালায়। তারা ঘরে থাকা ফ্রিজ, টিভি, আলমারি, খাট ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করে এবং আলমারি ভেঙে নগদ ২০ লাখ টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়। হামলাকারীরা রিসোর্টের সামনে নার্সারিতে ভাঙচুর চালিয়ে কয়েকশ গাছের চারা ভেঙে ফেলে। তারা রিসোর্টের সব কক্ষ তছনছ করে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি একেএম মিজানুল হক বলেন, রিসোর্টে হামলার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি, তবে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

advertisement
Evaly
advertisement