advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সব খবর

advertisement

মেজর সিনহা হত্যা : টেকনাফ থানার ওসি প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
৫ আগস্ট ২০২০ ২১:৩৭ | আপডেট: ৬ আগস্ট ২০২০ ০০:২৯
টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ। পুরোনো ছবি
advertisement

পুলিশের গুলিতে সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের মৃত্যুর ঘটনায় কক্সবাজারের টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

আজ বুধবার রাতে পুলিশ সদর দপ্তরের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি গণমাধ্যমকে বিষয়টি জানান।

এদিকে বুধবার সকালে ওসি প্রদীপসহ নয় পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস কক্সবাজারের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপরই এই খবর জানা গেল।

পুলিশ সদর দপ্তরের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘টেকনাফ থানার ওসিকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। থানার দ্বিতীয় কর্মকর্তা‌ এ‌বিএম দোহাকে দা‌য়িত্ব দেওয়া হয়েছে।’

এরপর টেকনাফ থানার ওসির সরকারি নম্বরে ওই গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে ফোন দেওয়া হলে তা ধরেন পরিদর্শক দোহা। তার কাছে জানতে চাইলে তিনি বিস্তারিত কিছু না জানালেও বলেন, মঙ্গলবার থেকে তিনি থানার দায়িত্ব পালন করছেন।

গত ৩১ জুলাই রাতে সিনহা নিহত হওয়ার পর থেকে সমালোচনায় রয়েছেন ওসি প্রদীপ। ওই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে তিনি নিহত হন। অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা একটি তথ্যচিত্র নির্মাণের জন্য কক্সবাজারে গিয়েছিলেন। রাতে তার এক সঙ্গীকে নিয়ে বেরিয়েছিলেন তিনি।

ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারের কথা জানিয়ে সে সময় পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, সিনহা তার পরিচয় দিয়ে তল্লাশিতে বাধা দেন। পরে তিনি পিস্তল বের করলে চেক পোস্টে দায়িত্বরত পুলিশ তাকে গুলি করে। এই ঘটনায় পুলিশ মামলাও করে।

তবে পুলিশের এই ভাষ্য নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিলে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সেনাবাহিনী, পুলিশ ও প্রশাসনের প্রতিনিধি নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

advertisement
Evaly
advertisement