advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বৈরুতে বিস্ফোরণ, শোকে স্তব্ধ লেবানন
ট্রাম্প বললেন হামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৬ আগস্ট ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৫ আগস্ট ২০২০ ২৩:২৩
advertisement

লেবাননের রাজধানী বৈরুতের বন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণকে বোমা হামলা বলে বর্ণনা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সংবাদমাধ্যম পলিটিকো জানিয়েছে, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হোয়াইট হাউসের করোনা ভাইরাস ব্রিফিংয়ে তিনি এ দাবি করেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমও এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে যে, ট্রাম্প এই বিস্ফোরণকে ‘হামলার মতো’ বলে বর্ণনা করেছেন।

এদিকে এ ঘটনায় গতকাল বুধবার জাতীয় শোক ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবিহ্বল হয়ে পড়েছে দেশবাসী।

পলিটিকোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিস্ফোরণের ঘটনাকে ‘ভয়াবহ হামলা’ উল্লেখ করে লেবাননের জনগণকে সমবেদনা জানিয়েছেন ট্রাম্প। সেই সঙ্গে তিনি তাদের জন্য সহায়তা পাঠানোর ঘোষণা দেন।

ট্রাম্প বলেন, ‘প্রথমেই আমি লেবাননের জনগণের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। বিভিন্ন সংবাদে দেখা যাচ্ছে সেখানে বহু মানুষ হতাহত হয়েছে। কয়েকশ মানুষ গুরুতর আহত হয়েছে। হতাহত ও তাদের পরিবারের প্রতি আমাদের প্রার্থনা রইল। যুক্তরাষ্ট্র লেবাননকে সহায়তায় প্রস্তুত।’

এদিকে লেবানের সরকার বলছে, বন্দরের কাছে ব্যাপক পরিমাণ দাহ্য রাসায়নিকের মজুদ ছিল যা থেকে এ বিস্ফোরণ হয়েছে। দেশটির অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তাবিষয়ক প্রধান বলেছেন, অত্যন্ত বিস্ফোরক রাসয়নিক পদার্থের গুদামে এ বিস্ফোরণ ঘটেছে। কর্মকর্তারা বলছেন, এ বিস্ফোরণ দুর্ঘটনা। পরিকল্পিতভাবে এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়নি। তারা বলছেন, গুদামে ৬ বছর ধরে মজুদ রাখা অত্যন্ত বিপজ্জনক বিস্ফোরক থেকে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব এ ঘটনাকে বিপর্যয় আখ্যা দিয়েছেন এবং দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বলেছেন।

ট্রাম্প এটিকে ‘ভয়াবহ হামলা’ হিসেবে উল্লেখ করার পর সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করেন, ‘বৈরুতের বিস্ফোরণ একটি হামলার ঘটনা ছিল; এ বিষয়ে আপনি আত্মবিশ্বাসী?’ জবাবে ট্রাম্প বলেন, মার্কিন সামরিক কর্মকর্তারা তাকে যা বলেছিলেন, তার ভিত্তিতে এটি ‘মনে হচ্ছে’। এটি হামলার ঘটনা ছিল।’

ট্রাম্প বলেন, ‘আমি আমাদের কয়েকজন জেনারেলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছি এবং তারা মনে করছেন যে এটি কোনো উৎপাদন সংক্রান্ত বিস্ফোরণ ধরনের ঘটনা নয়। তারা মনে করে এটি হামলার ঘটনা ছিল। এটি ছিল এক ধরনের বোমা বিস্ফোরণ।

উল্লেখ্য, বৈরুতে মঙ্গলবারের জোড়া বিস্ফোরণে শতাধিক লোকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ৪ হাজারের বেশি মানুষ। বহু মানুষ নিখোঁজ রয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। মঙ্গলবার ওই বিস্ফোরণে পুরো বৈরুত শহর কেঁপে ওঠে। ২৪০ কিমি দূরে সাইপ্রাসেও এর কম্পন অনুভূত হয়।

advertisement
Evaly
advertisement