advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ‘ধর্ষণ’, ৩ মাতব্বর গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক,বগুড়া
৭ আগস্ট ২০২০ ২০:১৯ | আপডেট: ৭ আগস্ট ২০২০ ২০:৩২
প্রতীকী ছবি
advertisement

বগুড়ার শেরপুরে এক প্রতিবন্ধী কিশোরী (১৪) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে তিন গ্রাম্য মাতব্বরকে গ্র্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শেরপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হোসেন জানান, গত বুধবার বিকেলে উপজেলার খানপুর দহপাড়া গ্রামের সোলায়মান আলীর ছেলে ঈমান আলী (৪০) একই গ্রামের প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়েকে কৌশলে নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। দিনি  নানা প্রলোভনে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেন। একপর্যায়ে ওই কিশোরীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে।

ওইদিনই ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে গ্রাম্য মাতব্বররা সালিস করেন। তবে ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে সালিসের পর দিন গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। মামলার ঘটনায় তিন গ্রাম্য মাতব্বরকে ওইদিন রাতেই গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত হলেন- ওই গ্রামের লোকমান হোসেন (৫০), আব্দুল লতিফ (৪৫) ও প্লাবন সরকার (৩৫)।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ঈমান আলীসহ নয়জনকে অভিযুক্ত করে থানায় একটি মামলা নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে তিন গ্রাম্য মাতব্বরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া ঘটনার মূল অভিযুক্তসহ অন্য অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

advertisement
Evaly
advertisement