advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে মাদ্রাসাছাত্রী, আত্মহত্যার হুমকি

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধি
১৩ আগস্ট ২০২০ ১৭:১৩ | আপডেট: ১৩ আগস্ট ২০২০ ২০:১৫
প্রতীকী ছবি
advertisement

বগুড়ার সোনাতলা উপজেলায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে এক মাদ্রাসাছাত্রী (১৭)। প্রেমিক বাদশা মিয়া (২২) তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করারও হুমকি দিয়েছে ওই ছাত্রী।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের লোহাগাড়া গ্রামের মাহফুজার রহমানের ছেলে বাদশা মিয়ার সঙ্গে একই উপজেলার হলিদাবগা দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এরই একপর্যায়ে গতকাল বুধবার সন্ধায় বিয়ের দাবিতে ওই মাদ্রাসাছাত্রী প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেয়। এসময় প্রেমিক বাদশা মিয়ার পরিবারের লোকজন তাকে বাড়ি থেকে বের করে দিলে ওই ছাত্রী পাশের সাবেক ইউপি সদস্য খাজা নাজিম উদ্দিনের বাড়িতে অবস্থান নেয়।

ওই মাদ্রাসাছাত্রীর দাবি, প্রেমিক বাদশা মিয়ার সঙ্গে তার দুই বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এর মধ্যে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে কয়েকবার শারীরিক সম্পর্ক করেন প্রেমিক বাদশা। সম্প্রতি প্রেমিককে বিয়ের জন্য চাপ দিলে তিনি সাত লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। কিন্তু প্রেমিকের চাহিদা মতো যৌতুকের টাকা দেওয়ার সামর্থ তার পরিবারের নেই। তাই বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে ওই ছাত্রী।

ওই মাদ্রাসাছাত্রী বলে, ‘বাদশা মিয়া আমাকে বিয়ে না করলে আমি আত্মহত্যা করব।’

স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য খাজা নাজিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘দুই পক্ষকে একত্রিত করে মীমাংসার উদ্যোগ নেওয়া হবে।’

এ বিষয়ে দিগদাইড় ইউপি চেয়ারম্যান আশী তৈয়ব শামীম বলেন, বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য ফোন করে তাকে জানিয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে সোনাতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মাসউদ চৌধুরী বলেন, বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে খোঁজ নিয়ে দেখার কথা জানান ওসি।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত আজ বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় ওই প্রেমিকা সাবেক ইউপি সদস্য খাজা নাজিম উদ্দিনের বাড়িতেই অবস্থান করছে বলে জানা গেছে।

advertisement
Evaly
advertisement