advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

লেবাননে নতুন সরকার গঠনের আহ্বান স্পিকারের

অনলাইন ডেস্ক
১৪ আগস্ট ২০২০ ০০:৩৮ | আপডেট: ১৪ আগস্ট ২০২০ ০০:৩৮
সরকার পদত্যাগের পরও বিক্ষোভে উত্তাল লেবাননের জনগণ। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

লেবাননে গত সপ্তাহে ভয়ানক বিস্ফোরণের পর সংসদের প্রথম অধিবেশনে অবিলম্বে নতুন সরকার গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন সংসদ স্পিকার। আজ বৃহস্পতিবার সংসদীয় বৈঠকে এ আহ্বান জানান স্পিকার।

এ সময় সভাস্থলের কাছে বিক্ষোভকারীদের ঠেকাতে বৈরুতে নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

গত ৪ অগাস্ট ভয়াবহ বিস্ফোরণে বহু মানুষ হতাহতের ঘটনার পর আন্দোলনের মুখে সরকার পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়। এরপরও আন্দোলন অব্যাহত থাকে দেশটির প্রেসিডেন্ট ও স্পিকারের পদত্যাগের জন্য।

আজ বৃহস্পতিবারের অধিবেশনে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ঘোষিত জরুরি অবস্থা নিয়ে আলোচনার পর সংসদ তা অনুমোদন করেছে। বিস্ফোরণের পর ইস্তফা দেওয়া আটজন সংসদ সদস্যের পদত্যাগও অধিবেশনে নিশ্চিত করা হয়েছে।

লেবাননের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ভয়েস অফ আমেরিকা জানায়, পার্লামেন্ট স্পিকার নাবিহ বেরি, দ্রুত সরকার গঠনের কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

ঊর্ধ্বতন এক রাজনীতিবিদ বলেছেন, “বিস্ফোরণের পর এমপি’দের পদত্যাগ এবং আগাম নির্বাচন করা নিয়ে কথা উঠলেও স্পিকার নাবিহ বেরি একটি রাজনৈতিক বার্তাও দিতে চান যে, পার্লামেন্টের অস্তিত্ব আছে।”

রাজনীতিবিদরা নতুন সরকার গঠন নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছেন। কিন্তু দেশটিতে রাজনৈতিক বিভক্তির প্রেক্ষাপটে এ এক জটিল প্রক্রিয়া।

ওদিকে, লেবাননে বিস্ফোরণের পর মানবিক সহায়তা আসতে থাকলেও বাইরের দেশগুলো পরিষ্কার করেই বলে দিয়েছে, দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনা দূর করতে জনগণের দীর্ঘদিনের দাবি অনুযায়ী সংস্কারের পদক্ষেপ না নেওয়া হলে লেবাননের ধসে পড়া অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে তহবিল দেওয়া হবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ডেভিড হল বৃহস্পতিবারই বৈরুতে যাচ্ছেন। সফরকালে তিনি লেবাননে অর্থনৈতিক এবং শাসনব্যবস্থার আশু সংস্কারের প্রয়োজনীয়তা এবং ছড়িয়ে পড়া দুর্নীতির অবসান ঘটিয়ে স্বচ্ছতা নিয়ে আসার ওপরই জোর দেবেন বলে জানিয়েছে সেখানকার মার্কিন দূতাবাস।

advertisement
Evaly
advertisement