advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

উহানের ল্যাবেই করোনা তৈরি, প্রমাণ আছে বললেন চীনা ভাইরোলজিস্ট

অনলাইন ডেস্ক
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:২৪ | আপডেট: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১১:৫২
উহানের ল্যাবের ভাইরোলজিস্ট লি মেং ইয়ান
advertisement

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম ধরা পড়ে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। উহানের ল্যাব থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে বলে শুরু থেকেই দাবি করে আসছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশ। তবে বরাবরই এই দাবি অস্বীকার করে এসেছে চীন। তবে এবার উহানের ক্যাব থেকেই করোনা ছড়ানোর দাবিকে জোরালো করলেন উহানের ল্যাবের এক ভাইরোলজিস্ট লি মেং ইয়ান।

ব্রিটিশ একটি টক শো তে হাজির হয়ে তিনি দাবি করেন, চীনের ল্যাবেই তৈরি করা হয়েছে করোনাভাইরাস। এটি মানুষের তৈরি বলে তার কাছে শতভাগ প্রমাণ রয়েছে। তিনি তা প্রকাশ করবেন বলেও জানিয়েছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিরর-এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হংকংয়ে জন্ম নেওয়া ভাইরোলজিস্ট লি মেং ইয়ান পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে। বছরের শুরুতে তাকে চীন হত্যা করতে চেয়েছিল বলে ভয়ে যুক্তরাষ্ট্র পালান তিনি।

চীন দাবি করেছে, উহানের স্থানীয় একটি বাজার থেকে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। কিন্তু সেকথা অস্বীকার করে তিনি দাবি করেছেন, উহানের সি ফুড মার্কেট থেকে এই ভাইরাসের উৎপত্তি হয়নি। তার কথায়, এই ভাইরাস চীনের ল্যাবেই তৈরি করা হয়েছে। এই ভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স মানুষের আঙুলের মুদ্রণের মতো। এর দ্বারাও প্রমাণিত হয় এটি মানবসৃষ্ট ভাইরাস।

লি মেং ইয়ান বলেন, আমি এই প্রমাণ ব্যবহার করে মানুষকে জানিয়ে দেব কেন চীনের ল্যাবে এই ভাইরাস তৈরি হয়েছে এবং কেন তারা এটি তৈরি করেছে। জীববিজ্ঞানের জ্ঞান না থাকলেও যে কেউ তা পড়তে পারবে এবং নিজেই তা যাচাই করতে পারবে। 

এর আগে তিনি দাবি করেছেন, করোনা সংক্রমণ নিয়ে মিথ্যা বলেছে চীন। সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার কথা অনেক আগে জানতে পেরেও রোগটির বিষয়ে সঠিক তথ্য গোপন রাখা হয়।

ইয়ান জানান, চীনের পূর্বাঞ্চলে গত বছরের শেষ দিকে নিউমোনিয়ার মতো এই রোগ প্রথমদিকে গবেষণাকারীদের একজন ছিলেন তিনি। কিন্তু যখন রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকে তখন তাকে নীরব ও সতর্ক থাকতে বলা হয়। তার সুপারভাইজার তাকে বলেন, আমরা সমস্যায় পড়ব এবং গুম হয়ে যাব।

advertisement
Evaly
advertisement