advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অমতে বিয়ে দেওয়ায় কীটনাশক পান করে নববধূর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০৯:২৯ | আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০৯:২৯
নববধূ লুৎফা
advertisement

গ্রামের একটি ছেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তার। কিন্তু পরিবার তা মেনে নেয়নি। বরং তার অমতে পরিবারের পছন্দের ছেলের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় অভিমানে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছেন এক নববধূ। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া ১২টা দিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ওই নববধূর নাম লুৎফা।

ঘটনাটি ঘটেছে পীরগঞ্জ উপজেলার বড়দরগা ইউনিয়নের শীবপুর গ্রামে। লুৎফা ওই ইউনিয়নের চাপা বাড়ি গ্রামের নবীর মেয়ে। পীরগঞ্জ থানার ওসি (অপারেশন) মাহবুবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মাস তিনেক আগে একাদশ শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্রী লুৎফার বিয়ে হয়েছিল উপজেলার বড়দরগা ইউনিয়নের শীবপুর গ্রামের মহিদুল ইসলামের সঙ্গে। কিন্তু ওই বিয়েতে রাজি ছিলেন না তিনি। গ্রামের আরেকটি ছেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তার। এ কারণে অভিমান করে মঙ্গলবার দুপুরে স্বামীর বাড়িতেই কীটনাশক পান করেন তিনি।

পরে মুমূর্ষু অবস্থায় লুৎফাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাত সোয়া ১২টায় তিনি মারা যান। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে বলেও জানান পীরগঞ্জ থানার ওসি।

advertisement
Evaly
advertisement