advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বেল ফিরছেন টটেনহ্যামে!

ক্রীড়া ডেস্ক
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:৫৫
advertisement

রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদানের অধীনে নিজেকে মূল দলের সদস্য হিসেবে প্রমাণ করতে পারেননি ওয়েলস তারকা গ্যারেথ বেল। সে কারণেই বছরের শুরুতে ইংলিশ কোনো ক্লাবে যোগ দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন বেল। ট্রান্সফার মার্কেটে তাকে পেতে টটেনহ্যাম ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের আগ্রহের গুঞ্জন ছিল। কিন্তু এখন স্পার্সরা বেলের এজেন্টের সঙ্গে প্রকাশ্যেই আলোচনার কথা জানিয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে ধারেই বেলকে দলে ভেড়াবে স্পার্সরা। তবে স্থায়ী চুক্তির বিষয়টিও তারা উড়িয়ে দেয়নি।

বেলের এজেন্ট জনাথন বারনেট বিবিসি স্পোর্টসকে বলেছেন, ‘গ্যারেথ এখনো স্পার্সকে ভালোবাসে। আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি। এ ক্লাবে সে সব সময়ই ফিরে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।’

রিয়ালের সঙ্গে বেলের এখনো দুই বছরের চুক্তি বাকি রয়েছে। যে কারণে প্রতি সপ্তাহে বেলের জন্য রিয়ালকে ৬ লাখ পাউন্ড গুনতে হবে। বিভিন্ন সূত্রমতে জানা গেছে এ ফরোয়ার্ডের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হওয়ায় অন্তত কিছুটা হলেও চুক্তির অর্থ সমন্বয় করে বেলকে রিয়াল ছেড়ে দেবে।

২০১৩ সালে বিশ^ রেকর্ড ফি ৮৫ মিলিয়ন পাউন্ডে টটেনহ্যাম থেকে রিয়ালে যোগ দিয়েছিলেন বেল।

রিয়ালের হয়ে এই সাত বছরে ৩১ বছর বয়সী বেল চারটি চ্যাম্পিয়নস লিগ ও দুটি লা লিগা শিরোপা জিতেছেন। কিন্তু গত বছর জিদানের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হওয়ায় বেল রিয়াল ছাড়তে বাধ্য হচ্ছেন। গত বছর করোনা মহামারী কাটিয়ে পুনরায় যখন লিগ শুরু হয় তখন মাত্র একটি ম্যাচে তিনি মূল একাদশে সুযোগ পেয়েছেন। ২০১৭ সালের পর এই প্রথম রিয়াল লা লিগায় শিরোপা জয় করে।

মাত্র ১৭ বছর বয়সে সাউদাম্পটন থেকে টটেনহ্যামে যোগ দিয়েছিলেন বেল। এখনো ক্লাবটির সঙ্গে তার একটি আবেগময় সম্পর্ক রয়েছে। এ ক্লাবে থেকেই তিনি নিজেকে বিশে^র অন্যতম আকর্ষণীয় একজন ফরোয়ার্ডে পরিণত করেছেন।

advertisement
Evaly
advertisement