advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

২৫২ যাত্রী নিয়ে সৌদি গেল প্রথম ফ্লাইট

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০:২৬ | আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৩:৩৯
advertisement

দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর প্রায় ২৫২ জন প্রবাসীকে নিয়ে সৌদি আরবের রিয়াদের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছে সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা ৫৭ মিনিটের দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে ফ্লাইটটি। সৌদির স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টা ২০ মিনিটে রাজধানী রিয়াদের কিং খালেদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি অবতরণ করে।

সৌদি ফেরা প্রবাসীদের মধ্যে কেউ ছুটিতে এসে ১০ মাস বা কেউ আমার ৫ মাসের মতো দেশে আটকে ছিল। অনেকের ভিসার মেয়ার এ মাসে শেষ হয়ে যাচ্ছে। অনেকে আবার রিটার্ন টিকিট নিয়ে এসেও কোনো সুবিধা করতে পারেননি। কেউবা সৌদি অবস্থানরত আত্মীয় বা বন্ধুদের মাধ্যমে নতুন করে টিকিট কেটেছেন। এর মধ্যে ছিল আবার করোনাভাইরাসের নেগেটিভ সনদের খ্ড়গ। যে কারণে অনেক প্রবাসীরই ফ্লাইট ধরতে দেরি হয়ে যায়।

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর কয়েক হাজার প্রবাসীর ভিসার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। যে কারণে সৌদি আরব থেকে ছুটিতে আসা প্রবাসীরা টিকিট ভোগান্তিতে পড়ে গত তিন দিন ধরে রাজধানীতে বিক্ষোভ করেছেন।

এদিকে জানা গেছে, বিমান বাংলাদেশে এয়ারলাইন্সকে আগামী ১ অক্টোবর থেকে বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত দিয়েছে সৌদি আরব। তবে যাত্রীদের আসন বরাদ্দ শুরু করার আগে সৌদি আরবে ল্যান্ডিং পারমিশন আবশ্যক হলেও সেটির অনুমতি পায়নি, যে কারণে এখনো টিকিট বিক্রি শুরু করতে পারেনি বিমান।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় গত ২৪ মার্চ সব আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ করে দেয় বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। পরবর্তীতে ১ জুন থেকে সীমিত পরিসরে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয় সংস্থাটি। তবে সৌদি সরকারের নিষেধাজ্ঞার কারণে দেশটিতে এতদিন বাংলাদেশের সঙ্গে বিমান চলাচল বন্ধ ছিল। সেপ্টেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে তারা সীমিতভাবে বিমান চলাচল শুরু করে।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান জানিয়েছেন, প্রবাসীরা সৌদি ফিরতে সাউদিয়া যে কয়টি ফ্লাইটের অনুমোদন চাইবে, তারা দিতে প্রস্তুত আছেন। এ ছাড়া বিমান বাংলাদেশও যেন সৌদিতে ফ্লাইট পরিচালনা করতে পারে, সে দিকটিও তারা দেখছেন। সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স ফ্লাইটের সংখ্যা বাড়াতে চাইলে অনুমতি দেবে বলেও জানান তিনি।

 

advertisement
Evaly
advertisement