advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মনোনয়ন জমা দিতে গিয়ে নিখোঁজ চেয়ারম্যান প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২৩:১৭
advertisement

ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান প্রার্থী মাসুদ রানা নিখোঁজ হয়েছেন। উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে এসে বুধবার তিনি রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন বলে জানিয়েছে তার পরিবার। তিনি উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে এবং বগুড়া জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি।

বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে মাসুদ রানার নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি তার বাবা ইয়াকুব আলী নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মাসুদ রানা বুধবার সকালের দিকে ধুনট শহরে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু রাতে বাড়িতে ফিরে না আসায় তার সন্ধান করতে থাকি। বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টা পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে। তাকে খুঁজে না পেলে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হবে।

জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২৩ এপ্রিল নির্বাচনে উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সাইফুল ইসলাম

ফটিক নির্বাচিত হন। বার্ধক্যজনিত কারণে ১৫ ফেব্রুয়ারি তিনি মৃত্যুবরণ করেন। এ কারণে ১৬ ফেব্রুয়ারি কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ শূন্য ঘোষণা করা হয়। আগামী ২০ অক্টোবর ওই ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ভোটগ্রহণ করা হবে।

এই নির্বাচনে মাসুদ রানা বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য ২৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। বুধবার দুপুরের দিকে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে উপজেলা পরিষদ চত্বরেও আসেন। সেখানে অনেকেই তাকে মনোনয়পত্র হাতে নিয়ে ঘোরাফেরা করতে দেখেছেন। কিন্তু তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি।

ধুনট উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মোকাদ্দেছ আলী বলেন, চেয়ারম্যান পদে সাতজন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। এর মধ্যে পাঁচজন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে দাখিল করেছেন। অবশিষ্ট দুজনের মধ্যে মাসুদ রানা বিএনপির প্রার্থী পরিচয় দিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। কিন্তু তিনি কেন মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

advertisement
Evaly
advertisement