advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সাভারে স্কুলছাত্রীকে হত্যা
অবশেষে বখাটে মিজানুর গ্রেপ্তার

সাভার প্রতিনিধি
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:২৯ | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০:১২
বখাটে মিজানুর রহমান চৌধুরী। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

সাভারে স্কুলছাত্রী নীলা রায় হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মূল আসামি মিজানুর রহমান চৌধুরী গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাভারের হেমায়েতপুর এলাকার পদ্মার মোড় থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত আলামত হিসেবে তার কাছ থেকে একটি ছুরি জব্দ করে পুলিশ। মিজানুরকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন সরদার।

মিজানুরকে গ্রেপ্তারের মধ্য দিয়ে এজহারভুক্ত আসামিদের সবাই এখন পুলিশ হেফাজতে। এ ঘটনায় মিজান ও তার মা-বাবাসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, মিজানুর এখন সাভার থানা হেফাজতে রয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড প্রার্থনা করে আজ শনিবার আদালতে প্রেরণ করা হবে।

বখাটের ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্রী নীলা রায় হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদ ও মূল আসামি মিজানুর রহমান চৌধুরীকে গ্রেপ্তার দাবিতে নাগরিক সমাজের আল্টিমেটামের আগেই পুলিশের কাছ থেকে মূল আসামি বখাটে মিজানের গ্রেপ্তারের খবর এলো।

মিজানুরকে গ্রেপ্তারের দাবিতে আজ বেলা ১১টায় সাভার উপজেলা পরিষদের সামনে সাভার নাগরিক কমিটিসহ ২৬টি সংগঠন সম্মিলিতভাবে মানববন্ধন কর্মসূচির ডাক দিয়েছিল।

এর আগে মিজানুরের মা ও বাবাকে আটক করার খবর দেয় র‌্যাব। গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মানিকগঞ্জ জেলার চারিগ্রাম এলাকা থেকে মিজানুরের মা নাজমুন নাহার সিদ্দিকী (৫০) ও বাবা আবদুর রহমান (৬০)। আটক করে সাভার থানায় সোপর্দ করে র‌্যাব।

নাজমুন নাহার সিদ্দিকী ও আবদুর রহমান সাভার পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের এ- ৭৪/২ ব্যাংক কলোনীর সাইদুল আলমের বাসায় ভাড়া থাকতেন। উভয়ই চাঞ্চল্যকর মামলার যথাক্রমে ২ ও ৩ নম্বর আসামি। হত্যাকাণ্ডের পরপর মূল আসামি মিজানুর রহমান চৌধুরীর সঙ্গে তারাও আত্মগোপনে চলে যান।

এ ছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গ্রেপ্তার করা হয়েছে মিজানুরের সহযোগী সেলিম পালোয়ানকে। দুদিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করেও সেলিমের কাছ থেকে কাঙ্ক্ষিত তথ্য না পেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মিজানুরকে ধরতে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তাসহ গোয়েন্দা নজরদারি জোরদার করা হয়। অবশেষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানের ধারাবাহিকতায় আজ রাতে পুলিশের জালে ধরা পড়ে প্রধান আসামি মিজানুর।

প্রসঙ্গত, গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে হাসপাতালে যাওয়ার সময় ভাইয়ের সামনে থেকে স্থানীয় অ্যাসেড স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী নীলা রায়কে তুলে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে বখাটে মিজানুর রহমান চৌধুরী।

advertisement
Evaly
advertisement