advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

রাজাকার সংস্করণ নিয়ে জাতিসংঘের সামনে যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগের হট্টগোল

কৌশলী ইমা,নিউইয়র্ক প্রতিনিধি
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১২:১৪ | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১২:১৪
ছবি : আমাদের সময়
advertisement

জাতিসংঘে বাংলাদেশের পূর্ণ সদস্যপদ লাভের ৪৬ বছর পূর্তি উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের এক সমাবেশে রাজাকার সমস্যা নিয়ে হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের সামনে আনন্দ-সমাবেশ করতে গেলে দলে রাজাকারের অনুপ্রবেশের বিষয়কে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদকের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হট্টগোল সৃষ্টি হয়। উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে পুলিশের উপস্থিতিতে পরিবেশ শান্ত হয়।

জাতিসংঘের সামনে আনন্দ সমাবেশ শেষে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন দেওয়ান সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানকে উদ্দেশ করে বলেন, রাজাকার এবং বেসিক সদস্য কেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানে।

সিদ্দিকুর রহমানকে আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতৃত্বে কেন জামাত এবং রাজাকার? এমনকি তার সদস্য নম্বরসহ (৪৪০) প্রমাণনাদি সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানকে দেওয়া হয়েছিল এক মাস পূর্বে। তারপরেও বেসিকের ওই সদস্য উপস্থিত হয় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সমাবেশে। তাকে দেখেই সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানকে প্রশ্ন করেন মহিউদ্দিন দেওয়ান। তাকে বক্তব্য দেওয়ার জন্য ডাকা হলেও তিনি অন্য দিকে চলে যান।

মহিউদ্দিন দেওয়ান প্রশ্ন করার সঙ্গে সঙ্গেই অঙ্গসংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নূরুজ্জামান সরদার উত্তেজিত হয়ে বলেন, জালিয়াত এবং চোরও যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগে থাকতে পারবে না। এটা শুনেই প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন মহিউদ্দিন দেওয়ান। একপর্যায়ে দুজনের কথা কাটাকাটি এবং অশ্লীল গালাগালিতে লিপ্ত হয়। পরে পুলিশের উপস্থিতিতে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ ব্যাপারে মহিউদ্দিন দেওয়ানের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। স্বেচ্ছাসবেক লীগের সভাপতি নূরুজ্জামান সরদার বলেন, ‘আমি বেসিকের সদস্য নই। এটা মহিউদ্দিন দেওয়ানের সৃষ্টি। তিনি যদি নিজে টাইপ করে চিঠি তৈরি করেন, তাতে আমার কিছুই করার নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘গত ২০ বছর ধরে আমি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। জাতিসংঘের সামনে মহিউদ্দিন দেওয়ান আমাকে এবং আমার পরিবারকে গালাগাল করলে আমি তার প্রতিবাদ করি।’

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান সভাপতিত্বে এবং সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের সঞ্চালনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মিরা বক্তব্য দেন। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা শামছুদ্দিন আজাদ, মহিউদ্দিন দেওয়ান, আব্দুল হাসিব মামুন, দুলাল মিয়া (হাজী এনাম), মোহাম্মদ সোলায়মান আলী, শাহানারা রহমান, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা নুরুজ্জামান সরদার, সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া জামান, কামাল হোসেন রাকিব, লিটন ও হুমায়ূন কবির প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

advertisement
Evaly
advertisement