advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিয়ের প্রলোভনে ডেকে নিয়ে তরুণীকে ‘গণধর্ষণ’

গাইবান্ধা প্রতিনিধি
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৭:৫১ | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৮:০২
গণধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার চার আসামি। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার শিববাড়ি এলাকায় বিয়ের প্রলোভনে ডেকে নিয়ে এক তরুণীকে (১৯) গণধর্ষণের অভিযোগ উঠৈছে। প্রেমিক ও তার বন্ধুরা মিলে ভুক্তভোগী তরুণীকে দুই দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় পুলিশ গতকাল শুক্রবার রাতে চার জনকে আটক করেছে।

পুলিশ জানায়, ভুক্তভোগী তরুণীর বাড়ি ফরিদপুর জেলায়। তার সঙ্গে গোবিন্দগঞ্জ পৌর এলাকার চাষকপাড়া গ্রামের আনারুল হকের ছেলে শাহাদত হোসেনের মুঠোফোনের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘদিন ধরে এ সম্পর্ক চলাকালে বিয়ের কথা বলে গত বুধবার ওই তরুণীকে নিজ এলাকায় ডেকে আনেন শাহাদত। ওই তরুণী গোবিন্দগঞ্জে এলে শাহাদত পৌরসভার শিববাড়ী এলাকার একটি বাড়িতে নিয়ে তাকে আটকে রাখেন। পরে শাহাদত ও তার বন্ধুরা মিলে ওই তরুণীকে গণধর্ষণ করেন।

সেখানে দুদিন ধরে নির্যাতনের শিকার হয়ে ভুক্তভোগী তরুণী কৌশলে ওই বাড়ি থেকে বের হয়ে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় গোবিন্দগঞ্জ থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশের একাধিক টিম পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত চারজনকে আটক করে। আটক যুবকরা হলেন-শাহাদৎ হোসেন (২০) ও তার সহযোগী ফুলবাড়ী নাচাই কোচাই গ্রামের জহুরুল সরকার (২৬), পৌরসভার বোয়ালিয়া (নয়াপাড়া) গ্রামের জাহাঙ্গীর মিয়া (৩৫) ও থানাপাড়া (কসাইপাড়া) গ্রামের জাহিদ হাসান (২৭)।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান। তিনি বলেন, ‘এই ধর্ষণের ঘটনায় নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত চার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

advertisement
Evaly
advertisement