advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

প্রতিবন্ধী আদিবাসীকে গণধর্ষণ

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:৪২
advertisement

খাগড়াছড়িতে একটি বাড়িতে ডাকাতির সময় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক আদিবাসী নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বিভিন্ন স্থানে পুলিশের সাঁড়াশি অভিযানে ৭ জন গ্রেপ্তার হয়েছেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, গত বুধবার রাত ৩টার দিকে জেলা শহরের বলপাইয়া আদাম এলাকায় গোলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে বিন্দুলাল চাকমার বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতদলের সদস্যরা বাড়িতে এক প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ করে এবং স্বর্ণালঙ্কারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায়। বাড়ির মালিক বিন্দুলাল চাকমা জানান, তারা সবাই যখন ঘুমে আচ্ছন্ন; তখন দরজা ভেঙে ডাকাতরা ঘরে প্রবেশ করে সবার হাত-পা বেঁধে ফেলে লুটপাট শুরু করে।

বিন্দুলাল চাকমার স্ত্রী পুষ্প রানী চাকমা জানান, ডাকাতরা সংখ্যায় ৯ জন ছিল। প্রায় সমবয়সী ডাকাতদলের সদস্যরা একটি কক্ষে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নারীকে (২৬) হাত-পা ও মুখ ওড়না দিয়ে বেঁধে ধর্ষণ করেছে। এ সময় তারা কানের দুল, আংটিসহ অন্তত ৩ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, মোবাইল ফোন সেট নিয়ে যায়।

ধর্ষিত নারী জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি সুস্থ আছেন বলে সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার পূর্ণ জীবন চাকমা জানিয়েছেন। খাগড়াছড়ি সদর থানার ওসি মো. রশিদ তদন্তের স্বার্থে বিস্তারিত জানাতে অপারগতা প্রকাশ করে বলেন, পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। অগ্রগতি প্রায় শতভাগ বলে জানান তিনি।

advertisement
Evaly
advertisement