advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

তিস্তায় বিলীন বিদ্যালয়
কোথায় বিদ্যার আনন্দ নেবে চর বিদ্যানন্দের শিশুরা

রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:১৫
advertisement

কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার এক বিচ্ছিন্ন চরাঞ্চল বিদ্যানন্দ ইউনিয়ন। এখানকার শিশুদের একমাত্র বিদ্যাপিঠ চর বিদ্যানন্দ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তিস্তা নদীর ভাঙন দেখা দেয়। এতে বিলীন হয়ে গেছে ওই বিদ্যালয়ের ভবন। ফলে এলাকার ছোট্ট ছেলেমেয়েরা এখন কোথায় লেখাপড়া করবে, কোথায় পাবে বিদ্যার আনন্দ- সব অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। সেই সঙ্গে ২০টি পরিবারের বসতবাড়িসহ বাস্তুভিটাও নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে ওই প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক অনন্ত কুমার সরকার বলেন, বিদ্যালয় ভবনটি বিলীন হওয়ায় প্রায় ১৫০ শিক্ষার্থীর পড়াশোনা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

রাজারহাট উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. সোলায়মান আলী গতকাল রবিবার বলেন, টেন্ডার দেওয়ার পরও কেউ এগিয়ে না আসায় ভবনটি নদীতে চলে যায়। প্রধান শিক্ষককে আসবাব ও দরজা-জানালাগুলো সংরক্ষণ করতে বলা হয়েছে। প্রতিষ্ঠান খুললে পরবর্তী ব্যবস্থা নিয়ে চরাঞ্চলের উপযোগী ভবন নির্মাণ করা হবে।

advertisement
Evaly
advertisement