advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দীপিকা-শ্রদ্ধা-সারার মুঠোফোন জব্দ

বিনোদন সময় ডেস্ক
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:৫৬
advertisement

বলিউডের মাদককা- প্রতিদিন জটিল সব রহস্য থেকে পর্দা তুলে দিচ্ছে। গত শনিবার ভারতের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর (এনসিবি) জেরার মুখে দীপিকা পাড়–কোন, শ্রদ্ধা কাপুর ও সারা আলী খান অনেক গোপন কথাই স্বীকার করেছেন মাদক এবং সুশান্ত সিং রাজপুতের ব্যাপারে। এ জেরার ফলস্বরূপ তিন অভিনেত্রীর মুঠোফোন জব্দ করেছে এনসিবি। তাদের ফোনগুলো নিয়ে তদন্ত করবেন সংস্থাটির কর্মকর্তারা।

অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী দাবি করেছিলেন যে, তার প্রেমিক সুশান্ত নিয়মিত মাদক নিতেন। এমনকি প্রয়াত এই অভিনেতা তার কর্মচারীদের মাদকসংক্রান্ত নানা কাজে ব্যবহার করতেন। এবার একই সুর শোনা গেল শ্রদ্ধার কণ্ঠে। এনসিবির কাছে তিনি বলেন, সুশান্ত নিয়মিত মাদক সেবন করতেন। কিন্তু শ্রদ্ধা কখনো মাদক নেননি।

শনিবার সকাল ১০টায় এনসিবির দপ্তরে হাজির হন দীপিকা। সাড়ে ৫ ঘণ্টা ধরে তাকে জেরা করা হয়। মাদক নিয়ে ম্যানেজার কারিশমা প্রকাশের সঙ্গে চ্যাটের কথা স্বীকার করলেও নিজে কখনো মাদক নেননি বলে জানান ‘বাজিরাও মাস্তানি’ তারকা। তবে এনসিবি কর্মকর্তাদের একাধিক প্রশ্নেরই নাকি উত্তর দেননি দীপিকা। আবারও তাকে জেরার জন্য ডাকতে পারে এই তদন্তকারী সংস্থা। দুপুর সাড়ে ১২টায় জেরার মুখোমুখি হন শ্রদ্ধা। প্রায় ৬ ঘণ্টা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এনসিবি। জেরায় তিনি স্বীকার করেছেন, স্বাস্থ্যগত কিছু জটিলতার কারণে প্রায়ই ‘সিবিডি তেল’ নিতেন। এই তেলে গাঁজার মিশ্রণ রয়েছে। আরেক অভিনেত্রী সারাকেও দীর্ঘ সময় ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তিনি মাদক সেবনের কথা অস্বীকার করেছেন। রিয়া আর শ্রদ্ধার মতো সারাও বলেন, সুশান্ত মাদক সেবন করতেন।

 

 

advertisement
Evaly
advertisement