advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হোঁচট খেল করোনাকালের প্রশংসনীয় উদ্যোগ
ফের কাঠগড়ায় ছাত্রলীগ

মেহেদী হাসান
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০৯:১৬
advertisement

গত বছরের ৬ অক্টোবর রাতে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী। এ নির্মম অমানবিক কা-ে সাধারণ মানুষের বিবেকের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হয় ঐতিহ্যবাহী এ সংগঠনটিকে; চরম ইমেজ সংকটে পড়ে ছাত্রলীগ। সেই কা-ের পর এক বছরেরও কম সময়ের মধ্যে ফের কাঠগড়ায় ক্ষমতাসীন দলের ভ্রাতৃপ্রতীম এ সংগঠনটি। এবার হত্যা নয়, কিন্তু খুবই ন্যক্কারজনক কা-ের কারণে। স্বামীর সামনে এক নববধূকে ছাত্রাবাসের কম্পাউন্ডে তুলে নিয়ে স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে তার সামনেই গণধর্ষণ করা হয়। গত শুক্রবারের এ কা-ে অভিযুক্ত সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। করোনার এই ক্রান্তিকালে জনমানুষের জন্য ছাত্রলীগের নানা সহায়ক কর্মসূচিসহ ইতিবাচক সব কর্মকান্ডকে কালিমালিপ্ত করে দিচ্ছে এসব গর্হিত অপরাধ।

করোনা ছড়িয়ে পড়ার পর চলতি বছরের ১৮ মার্চ থেকে বন্ধ আছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। এর আগের ১৫ মাসে প্রাচ্যের বাতিঘরখ্যাত এ প্রতিষ্ঠানটির ক্যাম্পাস ও হলগুলোতে অন্তত ২৫টি নির্যাতন ও অপরাধের ঘটনায় খবরের শিরোনাম হয়েছে ছাত্রলীগ। ঘটনাগুলোর পর ছাত্রলীগের দায়িত্বশীল পর্যায় থেকে কখনো বলা হয়েছে- ঘটনার বিষয়ে তারা অবগত নন কিংবা ছাত্রলীগের কেউ জড়িত নন; আবার কখনোবা ‘ব্যক্তির দায় সংগঠন নেবে না’, ‘তদন্ত করে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে’ ইত্যাদি ইত্যাদি বলা হয়েছে।

আট বছর আগেও ছাত্রলীগের বদৌলতে সংবাদ শিরোনাম হয়েছিল সিলেট এমসি কলেজ। তখন আগুন লাগিয়ে ছাত্রাবাস পুড়িয়ে দেওয়ার জন্য অভিযুক্ত হয়েছিল ছাত্রলীগ। সর্বশেষ ধর্ষণকা-ের পর অনেকেই বিস্মিত। তারা বলছেন, সরকারি নির্দেশে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ছাত্রাবাস বন্ধ। এর মধ্যেও কী করে ওই প্রতিষ্ঠানে সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা অবস্থান করছিল? এ ঘটনায় ছাত্রলীগের ৬ নেতাসহ মোট ৯ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় মামলা করা হয়েছে। অভিযুক্তরা স্থানীয় ছাত্রলীগের রণজিৎ গ্রুপের কর্মী বলে জানা গেছে।

অভিযোগ আছে, ছাত্রলীগের এসব নেতাকর্মী অবৈধভাবে ছাত্রাবাসের বিভিন্ন কক্ষ, এমনকি শিক্ষকের জন্য বরাদ্দকৃত বাসা পর্যন্ত দখল করে ক্যাম্পাস এবং এর আশপাশের এলাকায় ছিনতাই, চাঁদাবাজিসহ নানা অপকর্ম চালিয়ে আসছিলেন। ধর্ষণকা-ের পর সেদিন মধ্যরাতে ছাত্রাবাসটিতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় আগ্নেয়াস্ত্রসহ বেশকিছু অস্ত্র পাওয়া যায় ছাত্রাবাসে। এসব ঘটনায় বিভিন্ন মহল থেকে নিন্দার ঝড় ওঠে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকেও গত রবিবার সারাদেশে ধর্ষণকা-ে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয়েছে।

গত বছরের ৬ অক্টোবর মধ্যে রাতে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে তার নিজ হলে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের বুয়েটে শাখার কিছু নেতাকর্মী। হত্যার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগে বুয়েটের ছাত্রলীগের ২৪ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। যাদের অভিযুক্ত করে ইতোমধ্যে চার্জশিটও দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ওই ঘটনায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ১১ জনকে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়। এই হত্যাকা-ের পর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক ছাত্র বিক্ষোভ হয়। এ হত্যাকা-ের বিচারের দাবিতে সমাজের নানা শ্রেণি-পেশার মানুষও সোচ্চার হয়। পরে বুয়েট কর্তৃপক্ষ ক্যাম্পাসে সব ধরনের রাজনৈতিক সংগঠন এবং ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন।

চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগের প্রমাণ পেয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে গত বছর বাদ দেওয়া হয়। এর পর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য দিয়েই চলছিল সংগঠনটি। পরে এ বছরের ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে এ দুই নেতাকে ভারমুক্ত করে পূর্ণাঙ্গ দায়িত্ব দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। তবে ছাত্রলীগকে তারা এ পর্যন্ত সমালোচনা থেকে মুক্ত করতে পারেননি।

ছাত্রলীগের নানা নেতিবাচক কর্মকা- নিয়ে সমালোচনার মধ্যেই অনেক নেতা মানবিক কর্মকা-েরও নজির গড়েছেন। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের দুঃসময়েও আর্ত-পীড়িত ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে মানবতার কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে দেশের ঐতিহ্যবাহী ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। করোনা সংকট মোকাবিলা সাধারণ ছুটির কারণে কর্ম হারানো খেটে খাওয়া দিনমজুর ও দুস্থ মানুষকে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ থেকে শুরু করে বিভিন্ন এলাকায় স্বাস্থ্য সচেতনতা গড়ে তুলতে প্রতিদিন প্রচার চালায় সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। শুধু তাই নয়, মোবাইল ফোনে চিকিৎসকদের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা, অসুস্থ মানুষের বাড়িতে বাড়িতে ওষুধ পৌঁছে দেওয়া, বিনা পয়সায় অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসও চালু করা হয়েছে। ক্যাম্পাস, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, বাজার ও মোড়ে মোড়ে হাত ধোয়ার জন্য সাবান ও পানির ব্যবস্থা করে নেতাকর্মীরা। ক্যাম্পাস ছুটি থাকায় নিজ নিজ এলাকায় রয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। সেখানেই আর্তমানবতার সেবায় কাজ করছেন তারা। এলাকায় করোনার মহামারী প্রতিরোধে জীবাণুনাশক স্প্রেও করছেন।

করোনা ভাইরাস মহামারীর কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া শহরের অসহায়, ভাসমান ও ছিন্নমূল মানুষদের মধ্যে ঢাবি ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) ১২১ দিন খাবার বিতরণ কর্মসূচি সম্পন্ন করে ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য তানভীর হাসান সৈকত। গত ২৩ মার্চ শুরু হওয়া তার এই কার্যক্রম শেষ হয় ২১ জুলাই। এর মধ্যে প্রথম ১০০ দিন দুই বেলা এবং পরবর্তী ২১ দিন একবেলা খাবার সহায়তা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া গত রোজার ঈদে অন্তত এক হাজার নারী-পুরুষ-শিশুকে নতুন কাপড় বিতরণ করেন তিনি। কিন্তু করোনাকালেও কতিপয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর অপরাধমূলক কর্মকা- ছাত্রলীগের ভালো কাজগুলোকে ম্লান করে দিচ্ছে।

সার্বিক বিষয় নিয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় আমাদের সময়কে বলেন, ছাত্রলীগ অনেক বড় একটা সংগঠন। সারাদেশে ছাত্রলীগে কয়েক লাখ নেতাকর্মী রয়েছে। অনেক সময় অনেকে আমাদের সাংগঠনিক নির্দেশনা অমান্য করে বিভিন্ন নেতিবাচক কর্মকা-ে জড়িয়ে পড়ে। আমরা যখনই কারও বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ পাই সঙ্গে সঙ্গে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেই। কোনো অপরাধীর জায়গা বাংলাদেশ ছাত্রলীগে নেই। আর অপরাধীর কোনো দল নেই। অপরাধীকে আমরা সব সময় অপরাধী বলব। আমরা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বলে দিয়েছি যখনই কেউ কোনো অপরাধ করবে তাকে আইনের হাতে তুলে দিতে। তিনি বলেন, ছাত্রলীগের কোনো নেতাকর্মীরা যাতে কোনো অপরাধে জড়িয়ে না পড়ে তার জন্য আমাদের কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত কঠোর নির্দেশনা দেওয়া আছে। বিভিন্ন সময়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে মোটিভেশনাল সেমিনার করা হয়।

জয় বলেন, বিভিন্ন সময়ে ছাত্রলীগ করে না এমন লোকও যদি কোনো খারাপ কাজ করে তাকে ছাত্রলীগের বলে প্রচার করা হয়। আমাদের ছাত্রলীগের রাজনীতি করতে গেলে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আসতে গেলে নির্দিষ্ট কিছু শর্ত মানতে হয়। তাদের বয়স থাকা লাগে, তাদের ছাত্রত্ব থাকতে হয়, তারপর ছাত্রলীগের আদর্শ ধারণ করার পরে সে ছাত্রলীগের কর্মী হতে পারবে। সবাই ছাত্রলীগের কর্মী হতে পারে না।

advertisement
Evaly
advertisement