advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনা শনাক্তের পরও অফিস করছেন হাসপাতালের টেকনিশিয়ান!

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৭:৪২ | আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:১২
মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

নেত্রকোনার মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট পেয়েও অন্য দিনের মতো আজ মঙ্গলবার অফিস করেছেন। এতে রোগী ও হাসপাতাল স্টাফদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। তবে তার অফিস করার বিষয়টি জানে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ২০ সেপ্টেম্বর মদন হাসপাতালের ইপিআই টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। ২২ সেপ্টেম্বর তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। কিন্তু তিনি এতে গুরুত্ব না দিয়ে নিয়মিত অফিস করে যাচ্ছেন।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে মদন হাসপাতালে সরেজমিনে শামছুদ্দিনের অফিস কক্ষে গেলে দেখা যায়, তিনি দাপ্তরিক কাজে ব্যস্ত। কোনো রকম স্বাস্থ্যবিধি না মেনে পাঁচ থেকে ছয়জন ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকর্মীকে নিয়ে আলোচনা করছেন তিনি।

করোনা পজিটিভ হওয়ার পরও অফিস করার বিষয়ে টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন বলেন, ‘গত ২০ সেপ্টেম্বর করোনা পরীক্ষার জন্য আমার নমুনা দিলে ২২ সেপ্টেম্বর রিপোর্টে করোনা পজিটিভ আসে। আজ দ্বিতীয়বার নমুনা দেওয়ার জন্য অফিসে এসেছি।’

তবে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অফিস করার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি কোনো সদুত্তর না দিয়ে এড়িয়ে যান। এ সময় সাংবাদিকদের দেখতে পেয়ে তার কক্ষ থেকে অন্য স্টাফরা বের হয়ে যান।

এ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সাইফুল্লাহ সজীব বলেন, ‘ইপিআই টেকনিশিয়ান শামছুদ্দিন করোনায় আক্রান্ত। তার অফিস করার বিষয়ে আমি অবগত ছিলাম না। এখন জানতে পারলাম, সে অফিসে আছে। আজকেই শোকজ করে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

advertisement
Evaly
advertisement