advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পানিতে ডুবে প্রাণ গেল ৫ শিশুর

আমাদের সময় ডেস্ক
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০০:৪২
advertisement

পানিতে ডুবে মৃত্যুর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। সর্বশেষে গত সোমবার রাতে ও গতকাল পাঁচ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে নেত্রকোনার কলমাকান্দায় ২, পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী, চুয়াডাঙ্গা ও লালমনিরহাটে একজন করে মারা যায়। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

কলমাকান্দা : নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার পোগলা ইউনিয়নের গুতম-ল গ্রামের দুলালের বাড়ির পুকুরের সামনে গতকাল দুপুরে খেলা করছিল দুই ভাই মাহফুজ (৭) ও শান্ত মিয়া (৬)। খেলতে গিয়ে মাহফুজ পানিতে পড়ে যায়। এ সময় অপর শিশু শান্ত মাহফুজকে তুলতে গিয়ে দুজনেই ডুবে মারা যায়। মৃত মাহফুজ কলমাকান্দা উপজেলার পোগলা ইউনিয়নের

গুতম-ল গ্রামের মো. দুলাল মিয়ার ছেলে ও শান্ত উপজেলার ধর্মপাশার দক্ষিণ বংশীখু-া ইউনিয়নের রৌহা আলমপুর গ্রামের মো. শাহাআলমের ছেলে। তারা সম্পর্কে আপন খালাতো ভাই।

পটুয়াখালী : রাঙ্গাবালী উপজেলায় নানাবাড়িতে বেড়াতে এসে পুকুরের পানিতে ডুবে মো. হৃদয় (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়। গত সোমবার বিকালে উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নের দক্ষিণ চরমোন্তাজ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হৃদয় একই উপজেলার রাঙ্গাবালী ইউনিয়নের আমলিবাড়িয়া গ্রামের আনসার চৌকিদারের ছেলে।

চুয়াডাঙ্গা : আলমডাঙ্গা উপজেলার নতিডাঙ্গা গ্রামে গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাড়ির পাশে খেলা করার সময় পুকুরের পানিতে পড়ে যায় শাকিবুল ইসলাম (৩)। পরে পুকুর থেকে ভাসমান শাকিবুলের লাশ উদ্ধার করা হয়। সে উপজেলার নতিডাঙ্গা গ্রামের দক্ষিণপাড়ার মনজুর ম-লের ছেলে।

লালমনিরহাট : সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের হাড়িভাঙ্গা এলাকায় গতকাল দুপুরে প্রাইভেট পড়া শেষে তাহসিন কবির ও তার তিন বন্ধু মিলে সেখানকার একটি পুকুরে গোসল করতে নামে। এ সময় সাঁতার না জানা থাকায় তাহসিন পানিতে তলিয়ে যায়। পরে বন্ধুদের চিৎকারের স্থানীয়রা খোঁজাখুঁজি করে তাহসিনের মরদেহ উদ্ধার করে। সে ওই উপজেলার গোকু-া ইউনিয়নের কুশামারী এলাকার উত্তরবাংলা কলেজের গণিত বিভাগের অধ্যাপক আখতারুল কবিরের ছেলে। তাহসিন লালমনিরহাট শহরের ফাকল স্কুল ও কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্র। তারা বর্তমানের লালমনিরহাট শহরের বালাটারি এলাকায় বসবাস করছেন।

advertisement
Evaly
advertisement