advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

শ্যালকের টাকা আত্মসাৎ, বিমানবন্দর থেকে দুলাভাই গ্রেপ্তার

মতলব উত্তর (চাঁদপুর) প্রতিনিধি
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৮:৪৪ | আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২৩:০৩
গ্রেপ্তারকৃত দুলাভাই আবুল কালাম আজাদ
advertisement

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় শ্যালকের ২১ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় দুলাভাই আবুল কালাম আজাদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার রাতে তাকে হযরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে আজ বুধবার তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

সম্প্রতি উপজেলার তফাদার পাড়া গ্রামের সিরাজুল আলী প্রধানের ছেলে প্রবাসী দ্বীন ইসলাম তার বোন হেলেনা আক্তার কল্পনা, দুলাভাই সোনারপাড়া গ্রামের মনির হোসেন প্রধানের ছেলে আবুল কালাম আজাদ, আফরোজা আক্তার মুন্নি ও সাভারের ধলপুর গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে রিয়াজ মাহমুদের বিরুদ্ধে ২১ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলা দায়ের করেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ দ্বিতীয় আসামিকে গ্রেপ্তার করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা করে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, ফরাযীকান্দি ইউনিয়নের তফাদার পাড়ার সিরাজুল আলী প্রধানের ছেলে দ্বীন ইসলাম ১২ বছর আগে প্রবাসে পাড়ি জমান। লিবিয়া থেকে দুই বছর পর ফিরে এসে পুনরায় সৌদি আরব যান তিনি। সেখানে থেকে ১০ বছরে ২১ লাখ টাকা পাঠিয়েছেন তার মা সূর্যবান বেগমের অ্যাকাউন্টে।

মায়ের চেকবই চুরি করে স্বাক্ষর জাল করার মাধ্যমে তার আপন বোন হেলেনা আক্তার কল্পনা ওই অ্যাকাউন্ট থেকে ২১ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে ঢাকার সাভারে নিজের ও স্বামী আবুল কালাম আজাদের নামে বাড়ি করেছেন। শুধু তাই নয়, তাদের দলিলপত্র দিয়েও একটি এনজিও থেকে ১০ লাখ টাকা ঋণ এবং স্থানীয় আরও কয়েকজনের কাছ থেকে টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যান হেলেনা আক্তার কল্পনা ও তার স্বামী।

সম্প্রতি জমি কিনে ঘর করা এবং বিয়ে করার প্রস্তুতি নিয়ে দেশে ফিরেন দ্বীন ইসলাম। দেশে এসে তার মাকে নিয়ে টাকা তুলতে সোনালী ব্যাংক ফরাযীকান্দি শাখায় গিয়ে দেখেন অ্যাকাউন্টে মাত্র ৭ হাজার টাকা আছে।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, ‘মায়ের অ্যাকাউন্টে থাকা ভাইয়ের টাকা বোন-দুলাভাই কর্তৃক আত্মসাতের অভিযোগে মামলা হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আসামিকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়েছি। বাকি আসামিদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

advertisement
Evaly
advertisement