advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সুদের টাকা দিতে না পারায় গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

উল্লাপাড়া প্রতিনিধি
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:১৪ | আপডেট: ১ অক্টোবর ২০২০ ০৮:৫৫
নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ সোমা রানী দাস। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলায় ঋণের সুদ দিতে না পারায় এক গৃহবধূকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। আজ বুধবার দুপুরে উল্লাপাড়া পৌরসভার এনায়েতপুর আদর্শগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ গিয়ে নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূর নাম সোমা রানী দাস। তিনি ওই গ্রামের সঞ্জীব দাসের স্ত্রী। তাকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ভিডিওটি এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এ বিষয়ে ভুক্তেভোগী সোমা রানী দাসের অভিযোগ, আদর্শগ্রামের আবদুল কাদেরের মেয়ে দিপ্তী বেগম দীর্ঘদিন ধরে সুদের ব্যবসা করে আসছেন। তিনি গ্রামের অত্যন্ত প্রভাবশালী ব্যক্তি। কিছুদিন আগে দিপ্তীর কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন সোমা। আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে সোমা সময়মতো সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় দিপ্তী বেগম তার লোকজন নিয়ে বুধবার তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করেন। এ সময় সোমার কাছে আরও ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন দিপ্তী। সোমাকে নির্যাতনের দৃশ্যটি ভিডিও ধারণ করেন স্থানীয় যুবকেরা।

এ বিষয়ে  উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক কুমার দাশ বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সোমাকে উদ্ধার করেছে। এ সময় দিপ্তী বেগমকে আটক করে থানায় আনা হয়। তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।’

advertisement
Evaly
advertisement