advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনার নিয়ম মেনে বার্লিনে কঠিন চীবর দান

জার্মানি প্রতিনিধি
৫ অক্টোবর ২০২০ ১১:১৮ | আপডেট: ৫ অক্টোবর ২০২০ ১১:১৮
advertisement

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে মুক্তি কামনা ও জগতের সকল প্রাণী ও প্রকৃতির কল্যাণে, যথাযথ ধর্মীয় নিয়ম অনুযায়ী জার্মানিতে পালিত হয়েছে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব। গতকাল রোববার রাজধানী বার্লিনের ফ্রোনাউয়ের স্থানীয় জার্মান পাউল ঢালকে কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত সবচেয়ে পুরনো ডাস বুড্ডিসটিসে হাউজ বা বৌদ্ধ বিহারে এই কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত হয়।

এ উপলক্ষে দিনব্যাপী ধর্মীয় কর্মসূচির মধ্যে ছিল ভিক্ষু সংঘের প্রাতরাশ, মঙ্গল শোভাযাত্রা, পরম করুণাময় তথাগত সম্যক সম্বুদ্ধের পূজা ও শীল গ্রহণ। বিকালে উপাসক-উপাসিকা কর্তৃক পূজনীয় ভিক্ষুদের উদ্দেশ্য কঠিন চীবর দান, পরমকরুণাময় গৌতম বুদ্ধের অহিংস ধর্ম নিয়ে আলোচনা সভা, প্রদীপ পূজা ও সমবেত প্রার্থনা।

বৌদ্ধ ধর্মপ্রাণ উপাসক ও উপসিকারা দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানের জন্য এই দিনটিরই অপেক্ষায় থাকেন বছর ঘুরে। উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী পবিত্র প্রবারণা বা আশ্বিনি পূর্ণিমার পরদিন থেকেই বিশ্বের প্রায় সবগুলো বৌদ্ধ বিহারে এই কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। বাংলাদেশের মত না হলেও বার্লিনে এমন দানোৎসবে অংশ নিতে পেরে খুশি প্রবাসী বাংলাদেশিরা। ভিক্ষুদের চীবর দান দিতে আসা উপাসক নিতিশ চাকমা, জুঁই ত্রিপুরা, মিল্টন দেওয়ান, সুশীল বড়ুয়া, সুস্মিতা বড়ুয়া, যিশু বড়ুয়া, বকুল বড়ুয়া, অনিন্দ্য বড়ুয়া, অর্নব বড়ুয়া,শরন বড়ুয়া, অন্বেষা বড়ুয়া ও আশীষ বড়ুয়াসহ আরও অনেক প্রবাসী বৌদ্ধরা দেশ ও বিদেশের সবাইকে চীবর দানের পূণ্য দান ও শুভেচ্ছা জানান। পরে সমবেত প্রার্থনায় আগত ভিক্ষুসংঘ বিশ্ব থেকে করোনা থেকে মুক্তি দেশ ও দেশের সকল মানুষের কল্যাণে প্রার্থণা করা হয়।

advertisement
Evaly
advertisement