advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘জাদুঘরের নাম কষ্ট’

বিনোদন প্রতিবেদক
১৪ অক্টোবর ২০২০ ১২:৫৩ | আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০২০ ১৩:০৬
‘জাদুঘরের নাম কষ্ট’ শুটিংয়ের একটি দৃশ্য
advertisement

বর্তমান সময়ে প্রায় অধিকাংশ মানুষের কষ্ট বুকে যাপন করেই বেঁচে আছে। একেক মানুষের কষ্ট একেক রকম। প্রতিটি মানুষের কষ্টের রঙ আলাদা। কষ্ট ছাড়া মানুষ খুঁজে পাওয়া খুবই কঠিন। তেমনি একজন মানুষ অপূর্ব। যার কষ্ট লক্ষ কোটি মানুষের কষ্টের চেয়ে আলাদা রঙের। সারা নামে একটি মেয়েকে ভালোবেসে ছিল মন উজাড় করে। সেই সারা অপূর্বকে বিয়ে না করে বিয়ে করে জাহিদকে।

সারার বাবা হার্টের রোগী। সারা বাবাকে বাঁচাতে নিজের ভালোবাসাকে কোরবানি দেয়। অপূর্ব সারার ভালোবাসা না পেয়েও সারার জন্য একটি জাদুঘর নির্মাণ করে। সারা দুনিয়ায় বিভিন্ন পার্ক, বিনোদনমূলক জায়গা, চিড়িয়াখানা, সমুদ্র সৈকত সব পর্যটনমূলক স্থাপনায় সবাই আনন্দ-ঘুরতে যায়। কিন্তু প্রাণভরে কষ্ট-বেদনা ও কান্নার কোন স্থাপনা নেই। যেখানে গিয়ে মানুষ দুঃখ-বেদনা-কষ্ট ভুলে যাবে। অপূর্ব এমনি একটি জাদুঘর নিমার্ণ করে। এমনই এক গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে টেলিছবি ‘জাদুঘরের নাম কষ্ট’।

কথাসাহিত্যিক ও সাংবাদিক ইজাজ আহমেদ মিলনের লেখা গল্পে টেলিছবিটি নির্মাণ করেছেন আদিত্য জনি। চিত্রনাট্য করেছেন মিজানুর রহমান বেলাল। প্রযোজনা করেছেন পুলক প্রাঙ্গণ।

‘জাদুঘরের নাম কষ্ট’তে অপূর্ব চরিত্রে আব্দুন নুর সজল, সারা চরিত্রে হিমি, জাহিদ চরিত্রে মারজুক রাসেল অভিনয় করেছেন। এছাড়াও আছেন মিথিলা, রতন, শায়মা রুশো, আনোয়ার, শোরমী, রুশ খান, পারভীন আকতার প্রমুখ।

আদিত্য জনি জানান, ‘জাদুঘরের নাম কষ্ট’ টেলিছবিটি খুব শিগগিরই একটি বেসরকারি টেলিভিশনে প্রচার হবে।

advertisement
Evaly
advertisement