advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অবশেষে স্থগিত হলো ‘বিজয়া’ নাটকের প্রচার

বিনোদন প্রতিবেদক
১৫ অক্টোবর ২০২০ ১১:৪১ | আপডেট: ১৫ অক্টোবর ২০২০ ১২:০৯
‘বিজয়া’ নাটকের দৃশ্যে তিশা ও ইরফান সাজ্জাদ। পুরোনো ছবি
advertisement

‘বিজয়া’ নাটকের মাধ্যমে সনাতনী সম্প্রদায়কে কটাক্ষ, ধর্মান্তরকরণ ও সাম্প্রদায়িকতা উসকে দেওয়ার অভিযোগে অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা, অভিনেতা ইরফান সাজ্জাদ, পরিচালক আবু হায়াত মাহমুদ ভুঁইয়া ও রচয়িতা সালেহ উদ্দীন সোয়েব চৌধুরীকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

তারই পরিপ্রেক্ষিতে নাটকটির প্রচার স্থগিত করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট। বিষয়টি নিশ্চিত করেন ‘বিজয়া’ নাটকের পরিচালক আবু হায়াত মাহমুদ।

তিনি বলেন, ‘আমরা শিল্প-সংস্কৃতির চর্চা করি সম্প্রীতি ও ভালোবাসা বাড়ানোর জন্য। কিন্তু যদি উল্টোটা হয় তাহলে হতাশ না হয়ে উপায় নেই। একজন শিল্পী বা পরিচালক হিসেবে নানা গল্পে, নানা চরিত্র পর্দায় ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করি আমি। আমি যখন কাজ করি, আমার ইউনিটে ৩০-৪০ জন সদস্য থাকে। লাইট, ক্যামেরা, প্রোডাকশন, এডিটর, ডিওপি, আর্টিস্ট, মেকআপ, পরিবহন, সেট প্রপস নানা ডিপার্টমেন্টে তারা কাজ করেন। এখানে নানা ধর্মের বন্ধুরা থাকে। এখন পর্যন্ত কোনো দিন মনে হয়নি অমুক এই ধর্মের, সে ওই ধর্মের।’

আবু হায়াত মাহমুদ আরও বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করি অসাম্প্রদায়িক একটা দেশ ও সমাজের প্রতিনিধিত্ব করতে। তার পরও যখন আমার বিরুদ্ধে, আমার চমৎকার শিল্পীমনা টিমের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো আসল তা মেনে নিতে পারছি না। অনেক ভেবেচিন্তে আমার নাটকের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান “বিজয়া” নাটকটি আপাতত প্রচার না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা কোন ঝামেলা চাই না।’

advertisement
Evaly
advertisement