advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

তামিমদের কাছে শেরে বাংলার উইকেট যেন ‘চোরাবালি’

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৫ অক্টোবর ২০২০ ১৭:১০ | আপডেট: ১৫ অক্টোবর ২০২০ ১৭:১০
তামিমের দলের আরও এক ব্যাটসম্যানের আউটে মুশফিকের বুনো উল্লাস। ছবি : বিসিবি।
advertisement

বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের মধ্য দিয়ে করোনাকালের স্থবিরতা কাটিয়ে মাঠে ফিরেছে দেশের ক্রিকেট। এতে অনেকেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন; কিন্তু শেরে বাংলায় তারকা ব্যাটসম্যানদের রান খরা দেখলে অস্বস্তির সঙ্গে আসবে বিরক্তিও। তামিমের দলের দিকে তাকালেই বিষয়টি পরিষ্কার বোঝা যায়। বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবালের নেতৃত্বে গড়া তামিম একাদশে বেশ কয়েকজন পরীক্ষিত ব্যাটসম্যান খেললেও রানই পাচ্ছে না দলটি।

আজ বুধবার নাজমুল হোসেন শান্তর নেতৃত্বে গড়া নাজমুল একাদশের বিপক্ষে খেলতে নামে তামিম একাদশ। দুপুর দেড়টা থেকে শুরু হওয়া এই ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভার থেকেই তারা নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে। প্রথম ম্যাচে টেনেটুনে শতরান পার করার পর দ্বিতীয় ম্যাচেও তামিম একাদশের দেখা যাচ্ছে একই অবস্থা। শেষের দিকের শেখ মাহাদি হাসানের ২১ বলে ২৮ রানের ক্যামিও ইনিংসে দলটি ‘সম্মানজনক’ স্কোর গড়তে পারে।

শুরুতে তামিম ইকবাল, মাঝে শাহাদাত হোসেন দিপু ৩০ রানের ঘর পেরোতে পেরেছেন। শেষে মাহাদী হাসান ২৮ রানে অপরাজতি থাকেন। মাঝে মোসাদ্দেক ছাড়া তামিমের দলের আর কোনো ব্যাটসম্যানই দেখেননি দুই অঙ্কের মুখ। মোসাদ্দেক ১২ রান করতে খেলেছেন ৪৬ বল! চার চারের মারে তামিম সর্বোচ্চ ৩৩ রান করেন ৪৫ বলে। ৫২ বলে ৩১ রান করেন দিপু। কম বল খেলে বেশি রান করেছেন একমাত্র মাহাদী হাসানই।

৪০ ওভার তিন বলে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রান করে তামিম একাদশ। এরপরেই আসে ঝুম বৃষ্টি। এর আগে প্রথম ম্যাচেও প্রতিপক্ষের বোলারদের কাছে নাকানি চুবানি খেয়েছে দলটি। কোনোমতে টেনেটুনে ১০০ পার করেই অলআউট হয়ে তামিমের দল। ২৪ ওভার পুরোও খেলতে পারেননি তামিম-বিজয়রা। ওই ম্যাচেও আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ২৩ ওভার ১ বল ব্যাটিং করে  তামিম একাদশ মাত্র ১০৩ রান করে।

ওই ম্যাচে মাত্র ২ রান করেছিলেন তামিম। আজকের ম্যাচের মতো শেষ দিকে মাহাদী হাসানের ১৯ রানের সুবাদে ১০০ পেরোতে পারেন তারা।  টানা দুই ম্যাচে ব্যর্থ মোসাদ্দেক।  প্রথম ম্যাচে ২৭ করলেও দ্বিতীয় ম্যাচে এসে রান পাননি বিজয়। খেলতে পারেননি সাইফউদ্দিন-আকবর আলীও। তামিম-মোসাদ্দেকদের রান খরা দেখে মিরপুর শেরে বাংলার উইকেটকে মনে হচ্ছে ‘চোরাবালি।’

প্রথম ম্যাচে হার দিয়ে শুরু করেছেন তামিমরা। টুর্নামেন্টে নিজেদের অস্তিত্ব বজায় রাখতে হলে এই ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই।  কিন্তু ব্যাটসম্যানদের বিব্রতকর ব্যাটিংয়ে তামিম একাদশ জয়ের দেখা পাবে কী না সেটা বোঝা যাবে রাতেই।

advertisement
Evaly
advertisement