advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কিশোরীকে ধর্ষণ ফুফার, ভিডিও ধারণ ফুফুর

নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৭ অক্টোবর ২০২০ ২১:২৫ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২০ ০৯:০২
ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত কিশোরীর ফুফা আজির উদ্দিন এবং ধর্ষণের ভিডিও ধারণকারী ফুফু নাজমা বেগম
advertisement

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় ফুফুর কাছে দর্জির (টেইলার্স) কাজ শিখতে গিয়েছিল কিশোরী জয়া (ছদ্মনাম)। সেখানে ফুফার দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয় সে। আর এ ঘটনার ভিডিও ধারণ করেন কিশোরীর ফুফু নিজেই!

উপজেলার এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার একটি মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগীর মা। ফুফু নাজমা বেগম ও ফুফা আজির উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার তাদের দুজনকেই আদালতে তোলা হলে কারাগারে পাঠান বিচারক।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, উপজেলার করগাও ইউনিয়নের শ্রীধরপুর গুমগুমিয়া গ্রামে ফুফু নাজমা বেগমের কাছে দর্জির কাজ শিখতে যায় জয়া। গত বুধবার সন্ধ্যায় নাজমার স্বামী আজির উদ্দিন তাকে ধর্ষণ করেন। ভাতিজীকে ধর্ষণে সহযোগীতার পাশাপাশি পুরো ঘটনা মোবাইলের মাধ্যমে ভিডিও ধারণ করেন নাজমা। জয়ার মা মেয়েকে বাড়ি নিয়ে যেতে আজির উদ্দিনের বাড়িতে যান। সেখানে তাকে ঢুকতে বাধা দেন নাজমা। এ ছাড়া জয়াকেও আটকে রাখেন। পরে গ্রামের লোকজন নিয়ে জয়াকে উদ্ধার করেন তার মা।

গতকাল শুক্রবার রাতে এ ঘটনায় জয়ার মা বাদি হয়ে নাজমা ও আজির উদ্দিনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে নবীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কামাল আহমেদতার ফোর্স নিয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে আসামি স্বামী-স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেন।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান বলেন, ‘মামলার পরিপ্রেক্ষিতে আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে।’

advertisement
Evaly
advertisement