advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দেশে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ফের বেড়েছে নতুন শনাক্ত ১২০৯

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ অক্টোবর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২০ ০০:০৪
advertisement

দেশে করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ফের বেড়েছে। গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেছে ২৩ জন, যা আগের দুই দিনের তুলনায় বেশি। দেশে আগের দুই দিন শুক্র ও বৃহস্পতিবার মৃত্যুর সংখ্যা ছিল যথাক্রমে ১৫ ও ১৬

জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ৮ মার্চ। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর তথ্য জানিয়েছিল সংস্থাটি। দেশে গতকাল পর্যন্ত করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২১ লাখ

৫১ হাজার ৫৫২টি। এর মধ্যে রোগী শনাক্ত হয়েছে

৩ লাখ ৮৭ হাজার ২৯৫ জন, মারা গেছে ৫ হাজার ৬৪৬ জন এবং সুস্থ হয়েছে ৩ লাখ ২ হাজার ২৯৮ জন। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৮ দশমিক শূন্য ৫

শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৬ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ১১০টি ল্যাবে ১১ হাজার ৫৭৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ২০৯ জন

রোগী শনাক্ত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় রোগী শনাক্তের হার ১০ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ২৩ জন। এর মধ্যে ১৮ জন পুরুষ এবং ৫ জন নারী। দেশে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৫ হাজার ৬৪৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৪ হাজার ৩৪৫ জন, যা মোট মৃত্যুর ৭৬

দশমিক ৯৬ শতাংশ এবং নারী ১ হাজার ৩০১ জন, যা মোট মৃত্যুর ২৩ দশমিক ০৪ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরের বেশি বয়সী ১৫ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৪ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২ জন ও ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১ জন ও শূন্য থেকে থেকে ১০

বছরের মধ্যে ১ জন রয়েছে। মৃতদের অঞ্চল বিশ্লেষণে দেখা যায়, ঢাকা বিভাগে ১৪ জন, চট্টগ্রামে ৪ জন, খুলনায় ১ জন, বরিশালে ২ জন ও রংপুরে ২ জন রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫৬০ জন। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১ হাজার ৯৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৮১ জন, রংপুরে ১৭ জন, খুলনায় ১২৩ জন, বরিশালে ১০ জন, রাজশাহীতে ১১৩

জন, সিলেট ২১ জন ও ময়মনসিংহে ১ জন রয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ১৬৩ জন এবং ছাড়া পেয়েছেন ১০২ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১২ হাজার ৩২০ জন। ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৪২৮ জন এবং ছাড়া

পেয়েছেন ৫৫৫ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৩৯ হাজার ৮৬৮ জন।

advertisement
Evaly
advertisement