advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সব ফরম্যাট থেকে অবসরের ঘোষণা : কেঁদেই ফেললেন উমর গুল

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৮ অক্টোবর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২০ ০০:০৬
advertisement

অবসর ঘোষণা করে ফেললেন উমর গুল। একসময় পাকিস্তান বোলিং বিভাগের সেরা অস্ত্র হয়ে উঠেছিলেন তিনি। পাকিস্তানের ঘরোয়া টুর্নামেন্ট ন্যাশনাল টি-২০ কাপে খেলে শুক্রবার নিজের ক্যারিয়ার শেষ করলেন। শেষবেলায় পেলেন গার্ড অব অনার। সতীর্থদের অভাবনীয় সম্মান প্রদর্শনে আবেগ ধরে রাখতে পারলেন না উমর গুল। শেষমেশ সাংবাদিক সম্মেলনে এসে মাইকের সামনে কেঁদেই ফেললেন। এদিন তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখলেন, ‘অনেক ভাবনা-চিন্তার পর সব ফরম্যাট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ সিদ্ধান্ত আমার কাছে কতটা কঠিন ছিল তা বলে বোঝাতে পারব না। পাকিস্তানের জন্য সব সময় মন থেকে খেলেছি। মাঠে সব সময় নিজের ১০০ শতাংশ দেওয়ার চেষ্টা করেছি। ক্রিকেট আজীবন আমার প্রথম ভালোবাসা হয়ে থাকবে।’

পাকিস্তানের হয়ে ৪৭ টেস্ট, ১৩০টি ওয়ানডে এবং ৬০টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন উমর গুল। টেস্টে উইকেট সংখ্যা ১৬৩। ওয়ানডেতে ১৭৯। এবং টি-টোয়েন্টিতে ৮৫। পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে, পাকিস্তান ক্রিকেটের অন্যতম সফল বোলার তিনি। তবে সম্প্রতি উমর গুল আর পাকিস্তানের প্রথম একাদশে সুযোগ পেতেন না। ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের জার্সি গায়ে শেষবার আন্তর্জাতিক ম্যাচে নেমেছিলেন। তার পর ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত দেখা যেত ৩৬ বছর বয়সী ডানহাতি এ পেসারকে। পাকিস্তানে চলমান ন্যাশনাল টি-২০ কাপে তিনি বেলুচিস্তানের হয়ে খেলেছেন। শুক্রবার রাওয়ালপিন্ডিতে দক্ষিণ পাঞ্জাবের বিপক্ষে হেরে বিদায় নেয় বেলুচিস্তান। এদিন বল হাতে পথচলার যতি টেনে দিয়েছেন উমর গুলও। বিদায়বেলায় পেয়েছেন দক্ষিণ পাঞ্জাব ও বেলুচিস্তানের খেলোয়াড়দের সম্মানসূচক গার্ড অব অনার। তবে ক্রিকেটকে গুডবাই বলে দিলেও ক্রিকেট ছেড়ে যে থাকতে পারবেন না তা বলে দিয়েছেন। গুল এখন পরিবারকে সময় দিতে চান। বলেছেন, ‘ক্রিকেট থেকে দূরে থাকাটা কঠিন। যে খেলা এবং দেশ আমাকে এই গ্রহের অন্যতম ভাগ্যবান মানুষ বানিয়েছে, এখন সেটিকে কিছু ফিরিয়ে দিতে চাই।’ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে পাকিস্তানের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি হিসেবে বিদায় নিলেন উমর গুল। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে পাকিস্তানের পেস বোলিংয়ের আধুনিক কিংবদন্তি হয়েই থাকবেন তিনি। ২০০৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের শিরোপা জয়ে অসামান্য ভূমিকা ছিল তার। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চিফ এক্সিকিউটিভ ওয়াসিম খান বলেছেন, ‘তিনি কতগুলি ম্যাচ খেলেছেন এবং উইকেট নিয়েছেন তা দিয়ে তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারকে মূল্যায়ন করা যাবে না। আমি গুলের সঙ্গে পিসিবির বেশ কয়েকটি মিটিংয়ে অংশ নিয়েছি। তার ক্রিকেট জ্ঞান অসাধারণ। তিনি একজন পুরোপুরি ভদ্রলোক। তার ভবিষ্যতের জন্য শুভ কামনা রইল।’

এদিকে টুইটারে আজহার আলী, মিসবাহ-উল-হক, সরফরাজ আহমেদ, শান মাসুদ, ওয়াসিম আকরাম, মোহাম্মদ ইরফান, শহিদ আফ্রিদিদের শুভ কামনা বার্তায় সিক্ত হয়েছেন উমর গুল। শহিদ আফ্রিদির টুইট, ‘পাকিস্তানের অন্যতম একজন সেরা বোলার। খেলার সময় আমি তার সঙ্গে কিছু দুর্দান্ত সময় কাটিয়েছি। সে রিভার্স সুইংয়ে দুর্দান্ত একজন, সব সময় আমরা একসঙ্গে গর্বের সঙ্গে খেলতাম। সে একজন ভালো বন্ধু এবং একজন দুর্দান্ত মনের মানুষ। শুভ কামনা রইল গুলের জন্য।’

advertisement
Evaly
advertisement