advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বালকের ডাইনোসর আবিষ্কার

আমাদের সময় ডেস্ক
১৮ অক্টোবর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২০ ০৯:৩১
advertisement

১২ বছরের বালক নাথান হার্শকিন। গত জুলাইয়ে বাবা ডিওন হার্শকিনের সঙ্গে বেড়াতে গিয়েছিল কানাডার অ্যালবার্টায়। বিলুপ্ত প্রাণীর ফসিলে সমৃদ্ধ ওই এলাকায় নাথান আবিষ্কার করে ৬ কোটি ৯০ লাখ বছর আগের ডাইনোসরের কঙ্কাল। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ডাইনোসরের কঙ্কাল খোঁড়ার কাজ পুরোপুরি শেষ হয়। ছয় বছর বয়স থেকেই ডাইনোসর সম্পর্কে নাথানের আগ্রহ। সে কারণে প্রায়ই বাবার সঙ্গে অ্যালবার্টান বেডল্যান্ডে যায় সে। ওই এলাকাটি প্রাকৃতিকভাবে সংরক্ষিত একটি সুরক্ষিত অঞ্চল।

গত বছরও নাথান ও তার বাবা বেড়াতে এসে ফসিলের টুকরা দেখতে পেয়েছিল। তখনই ডিওন হার্শকিন অনুমান করেছিলেন এ টুকরাগুলো ওপরের পাথরের খ- থেকে পড়ছে। সে কারণে নাথান এবারের গ্রীষ্মে আবারও এলাকাটি দেখতে আসে। পাথরের পাহাড়ের এক পাশ দিয়ে হাড়গুলো বের হয়েছিল অনেকটা।

বাড়িতে ফিরে নাথান রয়্যাল টায়ররেল জাদুঘরের ওয়েবসাইটে যায়। সেখান থেকে তাদের বলা হয় তারা যে কঙ্কাল দেখেছে সেটির ছবি এবং গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম (জিপিএস) নির্ধারণ করে পাঠাতে। পাথরের পাহাড়ের গিরিখাদের দেয়াল থেকে এখন পর্যন্ত ৩০ থেকে ৫০টি হাড় পেয়েছে তারা। সবই একটি ছোট হ্যাড্রোসরাসের হাড়। যার বয়স আনুমানিক তিন অথবা চার বছর হবে। জাদুঘরের ইকোলজি কিউরেটর বলেন, নাথান ও তার বাবা ডিওনের এ আবিষ্কার ডাইনোসরের বিবর্তন সম্পর্কে আমাদের জ্ঞান সমৃদ্ধ করবে।

advertisement
Evaly
advertisement