advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

অপহৃত কলেজছাত্রীকে হাত-পা-মুখ বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার

নড়াইল প্রতিনিধি
১৮ অক্টোবর ২০২০ ১৫:৫৫ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২০ ১৬:০৬
advertisement

নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রীকে হাত-পা বাঁধা ও মুখে টেপ লাগানো অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে শহরের কুড়িগ্রামে এস.এম সুলতান কমপ্লেক্সের পাশ থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, অপহরণকারীরা ওই ছাত্রীকে অজ্ঞান অবস্থায় একটি কচুক্ষেতে ফেলে যায়।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর নাম কনা বিশ্বাস। তার বাড়ি জেলার কালিয়া উপজেলার চাঁচুড়ি ইউনিয়নের আরাজি বাঁশগ্রাম। তাকে উদ্ধারের পর নড়াইল সদর হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মুক্তিপণ আদায়ের জন্য তাকে অপহরণ করা হয়। এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বাবা পুস্পেন বিশ্বাস নড়াইল সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পুস্পেন বিশ্বাস জানান, ‘মেয়ে ভিক্টোরিয়া কলেজ হোস্টেলের পাশে কোচিং করতে যায়। প্রতিদিনের মতো সকাল সাড়ে ৮টায় বাড়ি থেকে বের হয়। সকাল ৯টা ২০ মিনিটের দিকে তার সাথে কথা হলে তাকে একটি নতুন মোবাইল সিম কিনতে বলি। এর পর তার সাথে আর কথা হয়নি।’

তিনি আরও বলেন, দুপুরে বাড়িতে না আসায় তাকে ফোন করি। কিন্তু ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নতুন মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করে বলা হয় মেয়েকে পেতে হলে ৫ লাখ টাকা লাগবে। তখন আমি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করি। সন্ধ্যার পর নারী কণ্ঠে মেয়ের পুরোনো ফোন নম্বর থেকে ফোন করা হয়। তখন বলা হয়, সুলতান কমপ্লেক্সের পাশ থেকে আপনার মেয়েকে নিয়ে যান। এ সময় বিষয়টি পুলিশকে জানালে তারা মেয়েকে উদ্ধার করেন।

নড়াইল সদর হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার ডা. জিদার চৌধুরী বলেন, ‘মেয়েটির পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন রয়েছে কি না তা এই মুহূর্তে বলা সম্ভব হচ্ছে না। তার পুরোপুরি জ্ঞান আসলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

এ ব্যাপারে নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সুকান্ত সাহা বলেন, ‘বিষয়টি জানার পরই সুলতান কমপ্লেক্সের শিশু স্বর্গ ভবনের পূর্ব পাশের একটি কচু ক্ষেত থেকে রাত ৯টা ২০ মিনিটের দিকে তাকে উদ্ধার করে। মেয়েটির হাত-পা ও মুখ বাঁধা ছিল। অজ্ঞান অবস্থায় পড়েছিল মেয়েটি। কারা তাকে অপহরণ করেছে তা এখনো জানা যায়নি। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

advertisement
Evaly
advertisement