advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্কুলছাত্রীকে ‘ধর্ষণ’ করলেন দমকল কর্মী, ৯৯৯ কল দিলে গ্রেপ্তার

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি
১৮ অক্টোবর ২০২০ ১৬:০৪ | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২০ ১৯:৫৭
প্রতীকী ছবি
advertisement

নীলফামারীর সৈয়দপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যান মো. আবু সাঈদ ওরফে সবুজকে (৩২) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার রাতে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সৈয়দপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তার সবুজ সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের পুর্ব বোতলাগাড়ী ওয়াপদা নতুনহাট এলাকার মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে। তিনি রংপুরের তারাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে ফায়ারম্যান হিসেবে কর্মরত।

মামলার সূত্র মতে, সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের উত্তর সোনাখুলী গ্রামের মো. তবার আলীর মেয়ে গোলাহাট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজের অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে স্কুল যাওয়া-আসার পথে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করতেন সবুজ।  গত শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) ওই ছাত্রী বাড়ির পার্শ্ববর্তী ঢেলাপীর পুলপাড়াস্থ বড় বোনের বাড়িতে বেড়াতে যায়। পরদিন সকালে তার বড়বোন ইপিজেডে শ্রমিকের কাজে এবং দুলাভাই অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে গেলে এই সুযোগে সবুজ বিকেলে ওই বাড়িতে যান। এ সময় ছাত্রীটিকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করেস সবুজ। পরে ছাত্রীটির বড়বোন বাড়িতে ফিরে এসে ঘটনা দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাকে আটক করেন। পরে জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল করে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবুল হাসনাত খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি দৈনিক আমাদের সময়কে বলেন, ‘মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আজ রোববার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।  এ ছাড়া ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ভিকটিমকে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ’

advertisement
Evaly
advertisement