advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পরে হত্যা, আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
২১ অক্টোবর ২০২০ ২১:১৭ | আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০২০ ২১:৩৬
ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত সাদ্দাম মিয়া
advertisement

মানিকগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় সাদ্দাম মিয়া (৩০) নামের এক যুবককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। প্রায় আট বছর পর এই মামলার রায় ঘোষণা হলো। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আলী হোসাইন এ রায় প্রদান করেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ৮ নভেম্বর রাত ১১টার দিকে সাটুরিয়া উপজেলার গোলড়া গ্রামের মো. ছানোয়ার হোসেনের মেয়ে তুহিন সুলতানা আক্তার মিমিকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে সাদ্দাম। ধর্ষণ শেষে সাদ্দাম মিমিকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। এ সময় সাদ্দাম ৪ ভরি স্বর্ণ, ৬ ভরি রূপা ও ৭৫ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। ওই স্বর্ণালংকার অপর আসামি সম্ভু সরকার ও তপু পালের কাছে বিক্রি করে সাদ্দাম।

সাদ্দাম ওই গ্রামেই একটি পোল্ট্রি ফার্মে চাকরি করতেন। দন্ডপ্রাপ্ত সাদ্দাম হোসেন ঘিওরের বেগুননার্চি গ্রামের আহমেদ মিয়ার ছেলে।

ঘটনার পরদিন মিমির বাবা সাটুরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার দুদিন পর ২০১২ সালের ১১ নভেম্বর পুলিশ সাদ্দামকে গ্রেপ্তার করে। পরে ২০১৩ সালের ২ জুলাই পুলিশ চার্জশিট দাখিল করে। মামলায় আদালত মোট ১৮ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করে।

আদালত সাদ্দাম মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিলেও অপর আসামি সম্ভু সরকার ও তপু পালকে বেকসুর খালাস দেন।

advertisement
Evaly
advertisement