advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

জীবনানন্দ দাশের প্রয়াণ

আমাদের সময় ডেস্ক
২২ অক্টোবর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০২০ ২৩:০২
advertisement

জীবনানন্দ দাশ [১৮৯৯-১৯৫৪] বাংলাভাষার অন্যতম প্রধান কবি। তিনি ১৮৯৯ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন। তাদের আদি নিবাস ছিল বিক্রমপুরের গাওপাড়া প্রামে। বাবা সত্যানন্দ দাশ ছিলেন শিক্ষক ও সমাজসেবক। মা কুসুমকুমারী দাশ ছিলেন কবি।

জীবনানন্দ কলকাতা সিটি কলেজে ১৯২২ সালে ইংরেজি সাহিত্যে অধ্যাপনা শুরু করেন। ১৯৪৭ সালে দেশভাগের আগে তিনি সপরিবারে কলকাতা চলে যান। ১৯৫৪ সালের ২২ অক্টোবর ওই শহরেই ট্রাম দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়।

জীবনানন্দ ছিলেন বাংলা কাব্যান্দোলনে রবীন্দ্রবিরোধী তিরিশের কবিতা নামে খ্যাত কাব্যধারার অন্যতম কবি। পাশ্চাত্যের মডার্নিজম ও প্রথম বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী বঙ্গীয় সমাজের বিদগ্ধ মধ্যবিত্তের মনন ও চৈতন্যের সমন্বয় ঘটে ওই কাব্যান্দোলনে। তিনি ছিলেন অন্তর্মুখী। তার দৃষ্টিতে ছিল চেতনা থেকে নিশ্চেতনা ও পরাচেতনার শব্দরূপ আবিষ্কারের ঘোর।

তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ ঝরাপালক প্রকাশিত হয় ১৯২৭ সালে। বিখ্যাত কাব্যগ্রন্থগুলো হলো- ধূসর পা-ুলিপি (১৯৩৬), বনলতা সেন (১৯৪২), মহাপৃথিবী (১৯৪৪), সাতটি তারার তিমির (১৯৪৮), রূপসী বাংলা ও বেলা অবেলা কালবেলা। ঔপন্যাসিক ও গল্পকার হিসেবেও জীবনানন্দ স্বতন্ত্র প্রতিভার ছাপ রেখেছেন।

advertisement
Evaly
advertisement