advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাবা-শ্বশুর হারিয়েও খেললেন তারা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৫ অক্টোবর ২০২০ ১৯:২২ | আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০২০ ১৯:৩০
মানদীপ সিং (বায়ে) ও নিতীশ রানা
advertisement

স্বজন হারানোর বেদনার শোক কাটিয়ে স্বাভাবিক জীবনে কেউ দ্রুত ফেরেন, আবার কেউ ভেঙ্গে পড়েন। এবারের আইপিএলে এক সাহসী কাজ করলেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের মানদীপ সিং ও কলকাতা নাইট রাইডার্সের নীতিশ রানা। মানদীপ হারিয়েছেন বাবাকে আর  নীতিশ রানা তার শ্বশুরকে। দুজনেই প্রিয়জন হারানোর শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করে খেলতে নামেন মাঠে।

আইপিএলে গতকাল শনিবার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও হায়দ্রাবাদ ম্যাচে বাবা হারানোর বেদনা নিয়ে মাঠে নামেন মানদীপ সিং। তিনি পাঞ্জাবের হয়ে ওপেনিংয়ে ব্যাটিং করতে নেমে ১৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন। যদিও তার দল শেষে পর্যন্ত জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে।

অন্যদিকে কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম দিল্লি ক্যাপিটালস ম্যাচে শ্বশুর হারানোর বেদনা নিয়ে মাঠে নামেন নীতিশ রানা। কলকাতার এই ব্যাটসম্যান ব্যাট হাতে ছিলেন দুর্দান্ত। মাত্র ৫৩ বলে করেন ৮১ রান। তার ব্যাটে ভর করেই বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কলকাতা।

দুজনের এমন বীরোচিত কাজে প্রশংসায় ভাসিয়ে দিয়েছেন শচীন টেন্ডুলকার। কলকাতা ও পাঞ্জাবের দুই ক্রিকেটারের উদ্দেশে টুইট করে সচিন লিখেছেন, ‘প্রিয়জনকে হারানোর যন্ত্রণা কষ্ট দেয়। কিন্তু সব থেকে হৃদয়বিদারক ব্যাপার হলো, শেষ দেখার সময়ও পান না অনেকে। মনদীপ ও রানার পরিবারকে সমবেদনা জানাই্। তোমরা অনেক ভালো খেলেছো।’

শচীন নিজেও ১৯৯৯ বিশ্বকাপ চলাকালীন বাবাকে হারিয়েছিলেন। বাবার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সেরে  কেনিয়ার বিপক্ষে মাঠে নেমে সেঞ্চুরিও করেছিলেন।

advertisement
Evaly
advertisement