advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সম্প্রীতির ঐতিহ্য আরও সমৃদ্ধ হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ অক্টোবর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০২০ ২২:২৬
advertisement

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কাদের বলেছেন, বাঙালি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। হিন্দু ধর্ম মতে, সমাজের অন্যায়, অবিচার, অশুভ এবং অশুর শক্তি দমনের মাধ্যমে বিশ^ময় শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এ পূজা উদযাপিত হয়। শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে দেওয়া বক্তব্যে গতকাল তিনি আরও বলেন, আবহমানকাল ধরে

দেশের হিন্দু সম্প্রদায় বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় শারদীয় দুর্গা উদযাপন করে। শুধু হিন্দু সম্প্রদায় নয়, সর্বজনীন দুর্গা উৎসবে এ দেশের মুসলিম, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ও উৎসবমুখর পরিবেশে অংশ নেয়।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আশা প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশে বিরাজমান হাজার বছরের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য আর সমৃৃদ্ধ হবে। আরও সুসংহত হবে বাংলাদেশে অসাম্প্রদায়িক চেতনা। সচেতনতায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে উৎসবে যোগ দিতে সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

অভিনন্দন বার্তায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান স্মরণ করেন জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে। তিনি বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করেছেন। জন্মাষ্টমীর শুভ দিনে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছেন। প্রতিটি উৎসবে অনুদান দিয়ে পাশে থেকেছেন তিনি।

জিএম কাদের বলেন, ১৯৫০ সালে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার পর নিরাপত্তাজনিত কারণে বাংলাদেশে জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দেশ পরিচালনার সময়ে দীর্ঘ ৩৯ বছর পর ১৯৮৯ সালে আবারও জন্মাষ্টমীর আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয় ঢাকায়। মন্দির নির্মাণ ও সংস্কারে পল্লীবন্ধুর আন্তরিক সহায়তা ছিল সর্বজনবিদিত। অভিনন্দন বার্তায় সবার শান্তিময় উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

advertisement
Evaly
advertisement