advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নটরডেম পরিদর্শন মাখোঁর, সেনা বাড়িয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি

অনলাইন ডেস্ক
৩০ অক্টোবর ২০২০ ১১:০৯ | আপডেট: ৩০ অক্টোবর ২০২০ ১১:১৬
নিস শহরের নটরডেম গির্জার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন মাখোঁ
advertisement

নটরডেম গির্জায় ছুরি হামলার পর সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি হয়েছে ফ্রান্সের নিস শহরে। মোতায়েন করা হচ্ছে বাড়তি ৪ হাজার সেনা। ঘটে যাওয়া হামলার পরিপ্রেক্ষিতে ঘটনাটিকে উন্মত্ত ‘ইসলামপন্থি সন্ত্রাসী হামলা’ বলে অভিহিত করেছেন প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁ। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তিনি বলেছেন, ‘ফ্রান্স সন্ত্রাসের কাছে হার মানবে না। নিজেদের মূল্যবোধও বিসর্জন দেবে না।’

গতকাল বৃহস্পতিবার নিস শহরে ছুরি হামলা চালিয়ে এক নারীর শিরশ্ছেদ করা হয়েছে। এ হামলায় গির্জায় আসা আরও দুইজন নিহত হন। হামলাকারী সন্দেহে পুলিশ একজনকে গুলি করার পর তাকে আটক করেছে।

নটরডেম গির্জার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন মাখোঁ। পরে গণমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘আমরা যদি আরও একবার হামলার শিকার হই, তাহলে তা আমাদের মূল্যবোধ: স্বাধীনতা, স্বাধীন বিশ্বাস এবং সন্ত্রাসের কাছে মাথা নত না করার জন্যই হবো। আজ আমি আবার পরিষ্কার করে বলছি, আমরা কোনো কিছুতেই আত্মসমর্পণ করব না।’

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, এ ধরনের হামলার মুখে ফ্রান্সকে একতাবদ্ধ হতে বলেছেন মাখোঁ। জনগণকে কোনোরকম বিভক্তির কাছে নতি স্বীকার না করতে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বিবিসি আরও জানিয়েছে, ঘটনার কয়েকঘণ্টার মধ্যে হামলার তদন্ত শুরু হয়। জাতীয় নিরাপত্তা সতর্কতার মাত্রাও সর্বোচ্চ পর্যায়ে উন্নীত করে দেশজুড়ে জনসমাগম এলাকাগুলোর সুরক্ষায় মোতায়েন করা সেনাসংখ্যা ৩ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৭ হাজার করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁ।

পুলিশ জানিয়েছে, সন্দেহভাজন হামলাকারী ২১ বছর বয়সের এক তিউনিসীয়। তার নাম ব্রাহিম আইউসাওয়ি। এই তরুণ সেপ্টেম্বরে নৌকায় করে ইতালির ল্যাম্পেদুসা দ্বীপে পৌঁছায়। সেখানে তাকে করোনাভাইরাস মোকাবেলা বিধি অনুযায়ী কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছিল। তারপর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় এবং ইতালি থেকে চলে যেতে বলা হয়। তারপরই এ মাসে সে ফ্রান্সে পৌঁছায়।

advertisement
Evaly
advertisement