advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মুসলিমদের অধিকার রয়েছে ফরাসিদের শাস্তি দেওয়ার : মাহাথির

অনলাইন ডেস্ক
৩০ অক্টোবর ২০২০ ১২:৫৯ | আপডেট: ৩০ অক্টোবর ২০২০ ১৭:১৭
মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ
advertisement

ফরাসিদের শাস্তি দেওয়ার অধিকার মুসলমানদের রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। গতকাল বৃহস্পতিবার এক ব্লগ পোস্টে তিনি লিখেন, অতীতের হত্যাযজ্ঞের জন্য মুসলমানদের ক্ষুব্ধ হওয়ার ও লাখো ফরাসি জনগণকে হত্যার অধিকার রয়েছে। কিন্তু মুসলিমরা চোখের বদলে চোখ নেওয়ার নীতি প্রয়োগ করেনি। ফরাসিদেরও করা উচিত না। এর পরিবর্তে ফরাসিদের উচিত তাদের জনগণকে অন্য মানুষের অনুভূতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার শিক্ষা দেওয়া।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা’র প্রতিবেদনে বলা হয়, মাহাথিরের ব্লগ পোস্টে নিসের হামলার কথা উল্লেখ নেই। অন্যদের সম্মান করুন- শিরোনামের লেখা শুরু হয়েছে ফরাসি শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি হত্যার কথা তুলে ধরে। টুইটারেও তা প্রকাশ করা হয়েছে। তবে লাখ লাখ ফরাসিকে হত্যার পোস্টটি টুইটার মুছে দিয়েছে।

৯৫ বছরের মাহাথির মুসলিম বিশ্বের শ্রদ্ধাভাজন এক নেতা। তিনি বলেছেন, মত প্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেন কিন্তু তা অন্যকে অপমান করার জন্য যেন ব্যবহৃত না হয়।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁ সভ্য নন এবং আদিম বলে অভিযোগ করেন মাহাথির। তাকে ইঙ্গিত করে মালয়েশীয় এই রাজনীতিক লিখেছেন, এক রাগান্বিত ব্যক্তির দায় যখন পুরো মুসলিম ও মুসলিমদের ধর্মের উপর চাপাচ্ছেন তখন ফরাসিদের শাস্তি দেওয়ার অধিকার রয়েছে মুসলমানদের। এত বছর ধরে ফরাসিরা যে ভুল করে আসছে পণ্য বর্জনে তার ক্ষতিপূরণ হবে না।

মাহাথির আরও লিখেছেন, এটি ইসলামের শিক্ষার সঙ্গে যায় না। কিন্তু ধর্ম নির্বিশেষে রাগান্বিত মানুষ হত্যা করে। ইতিহাসের পরিক্রমায় ফরাসিরা লাখ লাখ মানুষকে হত্যা করেছে। তাদের অনেকেই ছিলেন মুসলিম।

গতকাল বৃহস্পতিবারের হামলার নিন্দা জানিয়েছেন ক্যাথলিকদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা পোপ ফ্রান্সিস, জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা ম্যার্কেল, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ইতালির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ কন্তেসহ অনেক রাষ্ট্রপ্রধান।

উল্লেখ্য, এর আগে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের জেরে এক মুসলিম উগ্রবাদী কর্তৃক একজন ইতিহাস শিক্ষককে হত্যার পর থেকেই উত্তপ্ত ফ্রান্স। এই ঘটনায় ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশক ম্যাগাজিন শার্লি এবদোর বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে না বলে ঘোষণা দেন মাখোঁ। তার এ ঘোষণায় মুসলিম বিশ্বে তীব্র প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। ইসলামের প্রতি এমন মানসিকতার জন্য মাখোঁর মানসিক চিকিৎসা দরকার বলে মন্তব্য করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান। এমন পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার একটি গির্জায় ছুরি হামলায় তিনজন নিহত হন।

advertisement
Evaly
advertisement