advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে নববধূর আত্মহত্যা

মির্জাগঞ্জ(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি
৩০ অক্টোবর ২০২০ ১৫:৫৪ | আপডেট: ৩০ অক্টোবর ২০২০ ১৬:০৩
advertisement

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছেন এক নববধূ। গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার কলাগাছিয়া গ্রামে এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওই নববধূর নাম হাবিবা আক্তার আদুরী (১৮)। তিনি কলাগাছিয়া গ্রামের সুলতান হাওলাদারের মেয়ে ও একই গ্রামের সুমন সিকদারের (২২) স্ত্রী।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রেমের সম্পর্কের পর দুই মাস আগে পালিয়ে বিয়ে করেন সুমন সিকদার ও হাবিবা আক্তার আদুরী। আদুরী সন্দেহ করতেন তার স্বামীর সঙ্গে অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। বিয়ের পর এ নিয়ে প্রায়ই তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হতো।

গতকাল বৃহস্পতিবার আদুরীর মা তাকে নিজেদের বাড়িতে নিয়ে যান। এদিকে ঈদে মিলাদুন্নবীর কথা বলে ওইদিন বিকেলেই আদুরীকে বাবার বাড়ি থেকে নিয়ে আসেন তার শাশুড়ি। পরে রাত ১০টার দিকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পরকীয়ার ব্যাপারে ঝগড়া হয়। এ সময় আদুরী রাগ করে ঘর থেকে বেরিয়ে যান। অনেকক্ষণ ধরে না আসায় তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন খোঁজাখুঁজি করেন। এর কিছুক্ষণ পরে বাবার বাড়ির ঘরের পিছনে আম গাছের সঙ্গে ওড়না দিয়ে আদুরীকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

পরে পুলিশে খবর দেওয়া হলে তারা গিয়ে লাশটি উদ্ধার করেন। এ ব্যাপারে মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে জন্য পটুয়াখালী মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। এ ঘটনায় মির্জাগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।

advertisement
Evaly
advertisement