advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘পক পক’ থামালেন জামাল  

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৮ নভেম্বর ২০২০ ১৮:১২ | আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০২০ ২০:১৫
ট্রফি জয়ের পরে দর্শকদের সঙ্গে জামাল ভুঁইয়ার উল্লাস। ছবি : আমাদের সময় ।
advertisement

‘আমরা যদি জিতি সবাই পজিটিভ কথা-বার্তাই বলবে, আবার যদি হারি তাহলে সবাই পক পক করবে’-নেপালের বিপক্ষে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচকে কেন্দ্র করে ঠিক এভাবেই বলছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া। তার কথায় হারলে সবাই পক পক করবে তাই তিনি জিততে চান। বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচে জেতেনি ঠিকাছে তবে হারেওনি। শূন্য গোলে ড্র করলেও প্রথম ম্যাচ জিতে যাওয়াতে সিরিজের ট্রফি ঢুকে বাংলাদেশের শো-কেসে।

জামাল ভুঁইয়ার কথা মানেই রোমাঞ্চকর। তিনি যখনই কিছু না কিছু বলেছেন, আলোচিত হয়েছে। আধা বাংলা-আধা ইংরেজির মিশেলে তার কথাগুলো শ্রুতি মধুর। বাঙালি হলেও দেশের বাইরে বেড়ে ওঠার কারণে মাতৃভাষাটা তার ঠিকঠাক দখলে নেই। প্রায় সবসময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বাংলা দিয়ে শুরু করার চেষ্টা করেন। কিন্তু যখনই বোঝানোর জন্য বাংলার শব্দ খুঁজে পান না, তখনই চলে যান ইংরেজিতে।

দ্বিতীয় প্রীতি ম্যাচের আগে জামাল ভুঁইয়া আরও বেশ কয়েকটি মজার কথা বলেন। তার মতে, ‘আমরা জিতিসি একটু খুশি থাহেন, যে সময় আমরা জিততেসি ওই সময়ও সমালচোনা, এই মিস পাস, এই ভুল।’ এরপরেই জামালের ভাষ্য, ‘আমরা যদি হারি সবাই শুধু পক পক করবে।’ জামাল ভক্তদের কিংবা গণমাধ্যমের যিনি তাদের বুঝিয়েছেন, সবারই পকপক থামিয়েছেন সিরিজ জিতে।

বর্তমানে দেশের ফুটবলে সবচেয়ে বড় তারকা জামাল ভুঁইয়াই, যার প্রমাণ পাওয়া যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাকে নিয়ে মানুষের হাইপ দেখে। এ ছাড়া গতকাল দেশের ফুটবলে দেখা গেছে একটি ব্যতিক্রম দৃশ্য। খেলার মধ্যেই মাঠে ঢুকে এক দর্শক সোজা চলে যান জামালের কাছে তারপর পকেট থেকে মুঠোফোন বের করে সেলফি তোলেন। যেগুলো হারহামেশা ক্রিকেটে দেখা যায় (এই উপমহাদেশে), সেটাই ঘটেছে কাল। পরে ওই দর্শককে পুলিশ নিয়ে গেলে জামাল তার খোঁজ নিতে গিয়ে জিজ্ঞাসা করেন, ‘অকেতো (ওকে) কেউ মারেনি?’

দর্শকদের সঙ্গেও জামালের রয়েছে সু-সম্পর্ক, যা বাংলাদেশের কোনো ম্যাচ হলেও দেখা যায় । ম্যাচের পর গ্যালারির পাশে গিয়ে দর্শকদের সঙ্গে হাত নেড়ে কথা বলেন। নেপালের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে তো সেল ফিও তুলেছেন। জামাল এবার দেশের গণ্ডি পেরিয়ে খেলতে যাবেন দেশের বাইরের লিগে। কলকাতা মোহামেডানের হয়েই ভারতের আই লিগ মাতাবেন বাংলাদেশ ফুটবলের এই পোস্টার বয়। আগামী বছরের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে শুরু হতে পারে আই লিগ। সাত বছর পর আবারও এ লিগে খেলবে কলকাতা মোহামেডান। তাদের জার্সি গায়ে দেখা যাবে জামাল ভুঁইয়াকেও।

কলকাতা মোহামেডানে খেলে মাসে ৭ হাজার ডলার পেতে পারেন জামাল। এর আগে ভারতের ঐতিহ্যবাহী ওই ক্লাবটির হয়ে খেলেছেন রুম্মন বিন ওয়ালী সাব্বির, মাহবুব হোসেন রক্সিরা। তবে আই লিগে বাংলাদেশি ফুটবলার হিসেবে প্রথম খেলতে যাচ্ছেন জামাল ভুঁইয়াই।

advertisement
Evaly
advertisement