advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কর্মদক্ষতার জন্য সম্মাননা পেলেন মেজবাহ

কুয়েত প্রতিনিধি
১৯ নভেম্বর ২০২০ ১৪:১৫ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০২০ ১৪:১৫
মেজবাহ উদ্দিন
advertisement

৩৪ বছর ধরে কর্মস্থলে সততা ও দক্ষতার সাথে কাজ করায় মেজবাহ উদ্দিন নামে বাংলাদেশি এক প্রবাসী কর্মীকে সম্মাননা দিয়েছে কুয়েতের সরকারি একটি কোম্পানি। পাসপোর্টে বয়স ৬০ পূর্ণ হওয়ায় তাকে সম্মাননা দিয়ে বিদায় জানানো হয়। গতকাল বুধবার কুয়েত ছেড়ে দেশে ফেরার কথা রয়েছে তার।

জানা যায়, সিলেট সদর উপজেলার বাসিন্দা মেজবাহ উদ্দিন ১৯৮৬ সালে জীবিকার তাগিদে পাড়ি জমান কুয়েতে। দীর্ঘ ৩৪ বছর ধরে কুয়েত ফ্লার মিল অ্যান্ড বেকারিস নামে একটি সরকারি কোম্পানিতে কাজ করেছেন। শ্রমিক হিসেবে যোগদানের পর নিজের সততা, নিষ্ঠা ও কাজের দক্ষতায় কোম্পানির কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

কুয়েতের নতুন আইন অনুযায়ী পাসপোর্টে বয়স ৬০ হলে পুনরায় আকামা নবায়ন সম্ভব না হওয়ায় কোম্পানি তাকে সম্মাননা দিয়ে বিদায় জানায়। কর্মস্থলে ভালো আচরণ ও দক্ষতার কারণে কোম্পানি তাকে একটি প্রসংশাপত্র ও প্রাপ্য বেতন ছাড়া নগদ দুই হাজার দিনার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে পাঁচ লক্ষ টাকা) উপহার হিসেবে প্রদান করে।

কুয়েত প্রবাসী মেজবাহ উদ্দিন বলেন, ‘আমার কাজ করার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও আকামার নতুন আইনের জন্য দেশে চলে যেতে হচ্ছে। প্রবাসে যেমন সৎ হালাল পথে চলেছি জীবনের বাকি সময় পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনদের নিয়ে চলতে পারি মহান আল্লাহ দরবারে এই প্রত্যাশা। যাওয়ার সময় এতটুকুই বলবো বিদেশের মাটিতে আমরা প্রত্যেকেই বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করি, এমন কোনো কাজ করবো না যেটা আমার মাতৃভূমির সম্মানে আঘাত আসে।’

advertisement
Evaly
advertisement