advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে আসতে পারে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন

অনলাইন ডেস্ক
২০ নভেম্বর ২০২০ ১৫:১৪ | আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০২০ ১৬:৪১
প্রতীকী ছবি
advertisement

যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় উদ্ভাবিত করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন আগামী বছরের জানুয়ারি কিংবা ফেব্রুয়ারিতে বাজারে আসতে পারে। তবে সাধারণ মানুষ তা এপ্রিল-মে মাসের দিক থেকে পাবেন। বিষয়টি জানিয়েছেন অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন উদ্ভাবনে যুক্ত থাকা ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আদার পুনওয়ালা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়, গতকাল বৃহস্পতিবার ১৮তম হিন্দুস্তান টাইমস লিডারশিপ সামিটে অংশ নিয়ে আদার পুনওয়ালা বলেন, ‘আগামী বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন আসতে পারে। এটি প্রথমে স্বাস্থ্যকর্মী ও দুর্বল ব্যক্তিদের দেওয়া হবে।’ তিনি জানান, ভ্যাকসিনটির যে ট্রায়াল চলছে আগামী তিন-চার সপ্তাহের মধ্যে তার ফলাফল আসবে। তিনি আশা করছেন এতে সর্বোচ্ছ আশাব্যঞ্জক ফলাফল আসবে। মূলত এর উপরেই নির্ভর করবে ভ্যাকসিনটি কবে নাগাদ বাজারে আসবে। 

পুনওয়ালা জানান, আগামী এপ্রিল-মে মাস থেকে এ ভ্যাকসিন সর্ব-সাধারণরা পাবেন। প্রতি ডোজ ভ্যাকসিনের মূল্য ৫০০-৬০০ রুপি হতে পারে বলেও জানান তিনি।

করোনা প্রতিরোধে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন নিয়ে স্বপ্ন দেখছে ভারত। ভ্যাকসিনটি বাজারে এলে শুরুর দিকেই তারা এটি পাবে। ভারতীয় ওষুধ কোম্পানি এসআইএই এটি উৎপাদন করবে এবং তারা তাদের মোট উৎপাদিত ভ্যাকসিনের অর্ধেক ভারতকে দেবে বলে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ রয়েছে। তবে আদার পুনওয়ালা সতর্ক করে দিয়েছে, সকল ভারতীয়কে এ ভ্যাকসিন দেওয়া বিশাল চ্যালেঞ্জ এবং তা সম্পন্ন করতে ২০২৪ সাল পর্যন্ত লেগে যেরেত পারে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীও পুনওয়ালার মতোই আশার বাণী শুনিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বলছি, আমরা কয়েক মাসের মধ্যেই ভারতবাসীকে ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে পারব।’

advertisement
Evaly
advertisement