advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নওয়াজ শরীফের বক্তব্য সম্প্রচারে আদালতে ১৬ সাংবাদিক

অনলাইন ডেস্ক
২১ নভেম্বর ২০২০ ১৪:৩১ | আপডেট: ২১ নভেম্বর ২০২০ ১৯:৩৪
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ। পুরোনো ছবি
advertisement

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের বক্তব্য, সাক্ষাৎকার প্রচারে সরকারের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আদালতে পিটিশন করেছেন দেশটির ১৬ সাংবাদিক। রাজধানী ইসলামাবাদ হাইকোর্টে এ পিটিশন করেন তারা।

গত এক মাস আগে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি পলাতক বা ঘোষিত অপরাধীদের বক্তব্য, সাক্ষাৎকার সম্প্রচার ও পুনঃপ্রচার নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান। এর প্রতিবাদেই আদালতে যান ওই সাংবাদিকরা।

পিটিশন দাখিলকারীরা হলেন- সাংবাদিক নাজাম শেঠি, জিয়াউদ্দিন, নাসিম জেহরা, আসমা শেরাজী, গরিদা ফারুকী, মুনাজি জাহাঙ্গীর, সালেম সাফি, মনসুর আলী খান প্রমুখ।

সাংবাদিকদের এ পদক্ষেপের বিষয়ে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে দ্রুত প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে। টুইট বার্তায় পিটিআই বলেছে, ‘সাংবাদিকদের রাজনৈতিকভাবে পক্ষপাতহীন থাকতে হবে। দলীয় কর্মী হওয়ার কথা নয়।’

পাকিস্তান মুসলিম লীগ প্রধান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ নেতৃত্বাধীন সরকারের বিচার বিভাগ ও সামরিক বাহিনীসহ অনেক রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে উল্লেখ করে তুমুল সমালোচনা করেন। লন্ডন থেকে তিনি ইমরান খান সরকারের বিরুদ্ধে কড়া সমালোচনা করেন। পরে পাকিস্তান ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি ‘রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে টেলিভিশনে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য সম্প্রচার বন্ধ’ ঘোষণা করে।

পানামা পেপার্স কেলেঙ্কারির মামলায় ২০১৭ সালের ২৮ জুলাইয়ে পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্ট নওয়াজ শরীফকে প্রধানমন্ত্রীর পদে অযোগ্য ঘোষণা করে। আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয় তাকে। গত বছরের শেষ দিকে চিকিৎসার জন্য জামিন পান নওয়াজ শরীফ। তখন থেকেই তিনি লন্ডনে অবস্থান করছেন। সেখানে থেকেই তিনি বর্তমান ইমরান খান সরকারের নানা সমালোচনা করে আসছেন।

advertisement
Evaly
advertisement