advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

একজনের মিথ্যাচারে

আমাদের সময় ডেস্ক
২২ নভেম্বর ২০২০ ০০:০০ | আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০২০ ০০:১৩
advertisement

এক পিৎজাকর্মী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন। কিন্তু এর পরও তিনি মিথ্যাচার করেন এবং নিজেকে ওই পিৎজা শপের একজন ক্রেতা বলে পরিচয় দেন। আর এতেই বাধে যত বিপত্তি। তার এই একটি মিথ্যাচারে সম্প্রতি লকডাউনে যেতে হয়েছে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার ১৭ লাখ মানুষকে। দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার মুখ্যমন্ত্রী স্টিভেন মার্শাল সাংবাদিক সম্মেলন করে ওই প্রদেশের ১৭ লাখ মানুষকে ছয় দিনের জন্য লকডাউনে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। পুলিশ কমিশনার গ্রান্ট স্টিভেনস জানিয়েছেন, পিৎজা শপের ওই কর্মচারী ওখানকার কর্মচারী হওয়ার পরও তা আড়াল করেন।

এপ্রিলের পর প্রথমবারের মতো স্থানীয়ভাবে কয়েকজন ব্যক্তির করোনা শনাক্ত হওয়ায় বুধবার দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া লকডাউন করেছিল। এর মধ্যে পিৎজা বারটি করোনার হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। মার্শাল বলেছেন, পিৎজা বারের সঙ্গে সম্পৃক্তরা ইচ্ছাকৃতভাবে করোনা শনাক্তকরণ দলকে বিভ্রান্ত করেছে।

জানা গেছে, শনিবার মধ্যরাত পর্যন্ত, ওই প্রদেশে সব ধরনের হোম অর্ডার বাতিল করা হবে। এর পর দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ানদের বাইরে বের হওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে। তবে আগের নিষেধাজ্ঞাগুলো মেনে চলতে হবে।

মুখ্যমন্ত্রী এবং পুলিশ কমিশনার জানিয়েছে, মিথ্যা বলার জন্য কোনো আইন না থাকায় ওই পিৎজা কর্মীকে কোনো সাজা বা জরিমানা করা হবে না। যারা পিৎজা বারের ওই কর্মচারীর সংস্পর্শে এসেছেন তাদেরকে শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

advertisement
Evaly
advertisement