advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মোটরসাইকেলের জন্য স্বামীর নির্যাতন, গৃহবধূর ‘আত্মহত্যা’

মানিকগঞ্জ  প্রতিনিধি
২২ নভেম্বর ২০২০ ১৯:১০ | আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০২০ ২১:৪৯
প্রতীকী ছবি
advertisement

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় স্বামী ও শাশুড়ির নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে রুবি আক্তার (১৫) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে । গতকাল শনিবার রাতে রুবি উপজেলার বরাইদ ইউনিয়নের দক্ষিণ রৌহা গ্রামে তার স্বামীর বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। গতকাল রাতেই পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

নিহত গৃহবধূ স্থানীয় আগ তাড়াইল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। তার স্বামী রাজু আহম্মেদ এবার এসএসসি পাশ করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ছয় মাস আগে দক্ষিণ রৌহা গ্রামের আ. করিমের ছেলে রাজুর সঙ্গে টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুরের সাক্ষীপাড়া গ্রামের পিয়ার আলীর মেয়ে রুবির বিয়ে হয়। বিয়ের দুই মাস যেতে না যেতেই একটি মোটরসাইকেলের জন্য রাজু ও শাশুড়ি রুবির ওপর অত্যাচার শুরু করে।

নিহতের মা শাহানাজ বেগম অভিযোগ করে বলেন, ‘বিয়ের সময় রাজুর চাহিদা মতো অনেক কিছুই যৌতুক দেওয়া হয়। এরপর সে একটি মোটরসাইকেলের জন্য আমার মেয়েকে চাপ দিতে থাকে। এটি দিতে অস্বীকার করায় রাজু ও তার মা আমার মেয়ের ওপর নির্যাতন করত। তাদের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরেই আমার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে।’

সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মতিয়ার রহমান মিঞা বলেন, ‘এ ঘটনায় নিহতের মা শাহনাজ বেগম বাদী হয়ে রাজু ও তার মা পারুল বেগমের নামে আত্মহত্যা প্ররোচনায় মামলা করেছেন। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।’

advertisement
Evaly
advertisement