advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিনের পরিবহন শুরু

অনলাইন ডেস্ক
২৮ নভেম্বর ২০২০ ১০:৪৯ | আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০২০ ১৪:০১
ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজ। পুরোনো ছবি
advertisement

মার্কিন ওষুধ কোম্পানি ফাইজারের উৎপাদিত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দেশটির ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) থেকে ছাড়পত্র পেয়েছে। এবার এ ভ্যাকসিনের পরিবহন শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে। ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন পরিবহনের কাজটি করছে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স।

মার্কিন সাময়ীকি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের বরাতে ফক্স নিউজের খবরে বলা হয়, গতকাল শুক্রবার থেকে ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন পরিবহন শুরু করেছে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স। আকাশপথে করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম বড় চালানের অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোর ও’হেয়ার বিমানবন্দর থেকে বেলজিয়ামের ব্রাসেলস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে চার্টার্ড ফ্লাইট পরিচালনা করতে যাচ্ছে ইউনাইটেড।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল বলছে, ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের প্লেস্যান্ট প্রেইরি ও জার্মানির কার্লশ্রুর গুদামের সংরক্ষণ ক্ষমতা বাড়িয়েছে ফাইজার। কার্গো বিমান ও ট্রাকের ভেতরে স্যুটকেসের মতো হিমায়িত বক্সে করে বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন সরবরাহের পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।

তবে এ বিষয়ে ফক্স নিউজের পক্ষ জানতে চাওয়া হলে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি ফাইজার কিংবা ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি এফডিএ এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমোদন পেয়েছে ফাইজারের ভ্যাকসিন। অনুমোদন পাওয়ার পর ফাইজার দ্রুত ভ্যাকসিন পরিবহনের কাজ শুরু করেছে। তার পরপরই এই কাজে চার্টার্ড বিমান ব্যবহারের খবর সামনে এলো। ফাইজারের সঙ্গে ভ্যাকসিনটি আবিষ্কারে কাজ করেছে জার্মান জৈবপ্রযুক্তি কোম্পানি বায়োএনটেক। তাদের ভ্যাকসিন ৯৪ শতাংশের বেশি কার্যকর বলে দাবি করেছে তারা। ফাইজার উৎপাদিত করোনা ভ্যাকসিন মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তারও কম তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হবে।

advertisement
Evaly
advertisement